আগস্টের কালরাতে খুঁজে ফেরা ছন্দের জাদুকর

তুষার গায়েন

প্রতিদিন সাধারণ মানুষের ভিড় থেকে অসাধারণ ক্ষণজন্মা কোনো মহা মানবের আবির্ভাবে সবচেয়ে বেশি ভূমিকা রাখে প্রকৃতি। পৃথিবীর যে অঞ্চলে তাঁর জন্ম সে অঞ্চলের প্রকৃতি তার প্রধান বৈশিষ্ট্যগুলো যত অকাতরে ঐ মানুষটিকে দান করে, তিনি হন ততো মহীয়ান ও প্রভাবসঞ্চারী। বাংলার ঋতু পরিক্রমায় গ্রীষ্ম এবং বর্ষা সবচেয়ে প্রভাবশালী — প্রচণ্ড অগ্নিতেজের পর অজস্র জলধারার শীতল স্পর্শ আমাদের জীবন ছন্দকে নিয়ন্ত্রিত করে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভেতরে এই দুই ঋতুর দান সবচেয়ে বেশি দৃশ্যমান — তাঁর কণ্ঠের বজ্রনির্ঘোষে লক্ষ লক্ষ মানুষ জেগে ওঠে, আগুনের হলকায় উজ্জীবিত হয়ে ওঠে, আবার তিনি যখন আনন্দে বিগলিত হয়ে ডান হাতে চশমা সরিয়ে নিয়ে বাম হাতে চোখ মোছেন, তখন দ্যাশের মানুষ তাঁর সাথে আনন্দ জোয়ারে ভাসে। এই যে আবেগের ছন্দ ও তার উত্থান পতন, এর সাথে বাংলাদেশের মানুষের হৃদস্পন্দন এক তারে বাঁধা। ১৫ আগস্টের কাল রাত্রিতে দেশের শত্রুরা সেই তার কেটে দিয়েছে।

আমরা এখন এক ছন্দহীন, দিশাহারা জাতি — খুঁজে ফিরছে সেই ছন্দের জাদুকর !

১৫ আগস্ট ২০২০

রাইজিংকক্স.কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।