সারাদেশ

আজীবন রেশন পাবেন পুলিশ সদস্যরা

পুলিশ

রাইজিং কক্স ডেস্ক : পুলিশ বাহিনীর সদস্যদের আজীবন রেশন সুবিধা দিয়ে অর্থ বিভাগ বুধবার (২৯ জানুয়ারি) অফিস আদেশ জারি করেছে। ওইদিনই স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সিদ্ধান্তটি কার্যকর করার জন্য পাঠানো হয়েছে।

বর্তমানে চাকরিতে প্রবেশের দিন থেকে অবসরোত্তর ছুটি পিআরএল পর্যন্ত পুলিশের কনস্টেবল থেকে শীর্ষপদ পর্যন্ত রেশন সুবিধা পাচ্ছেন। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বিজিবি, আনসার, কারারক্ষী ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীরাও একই সুবিধা ভোগ করছেন।

নতুন আদেশ অনুযায়ী, পুলিশ বাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত পরিবারের সদস্য সংখ্যা দুইজন হিসেব করে ভর্তুকি দামে রেশন দেয়া হবে। প্রতি মাসে ২০ কেজি চাল, ২০ কেজি আটা, ২ কেজি চিনি, সাড়ে ৪ লিটার ভোজ্য তেল, ২ কেজি ডাল পাবেন তারা। গত ১ জানুয়ারি থেকে যেসব পুলিশ সদস্য অবসরে গিয়েছেন বা যাবেন তারা এ সুবিধা পাবেন। এ সুবিধা সন্তানদের ক্ষেত্রে ২১ বছর পর্যন্ত প্রযোজ্য হবে। তবে অবিবাহিত, প্রতিবন্ধী সন্তান আজীবন এ সুবিধা পাবেন। কোনো ক্ষেত্রেই পরিবারের সদস্য সংখ্যা দুইজনের বেশি হওয়া যাবে না। পরিবারের সদস্য সংখ্যা একজন হলে রেশনের পরিমাণ অর্ধেকে নেমে আসবে। স্বামী-স্ত্রী উভয়ই পুলিশ বাহিনীর সদস্য হলে অথবা ভিন্ন ভিন্ন রেশন সুবিধাসংবলিত দপ্তর বা সংস্থায় কর্মরত হলে তাদের যেকোনো একজন যতদিন কর্মরত থেকে পারিবারিক রেশন বা সুবিধা ভোগ করবেন ততদিন পর্যন্ত তাদের কেউ বা পরিবারের কোনো সদস্য অবসরকালীন রেশন সুবিধা প্রাপ্য হবেন না। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ হতে এ আদেশ জারি করতে হবে। এটি আদেশ জারির পর থেকে কার্যকর হবে।

বর্তমানে প্রচলিত নিয়ম অনুসারে, পুলিশ ছাড়াও বিজিবি, আনসার, কারারক্ষী ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মচারীরা রেশন সুবিধা পেয়ে থাকে। এছাড়া দুর্নীতি দমন কমিশনের তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারীরাও রেশন সুবিধা ভোগ করেন। রেশন হিসেবে চাল, ডাল, তেল, আটা ও চিনি পেয়ে থাকেন তারা। স্বামী-স্ত্রী, এক সন্তানসহ কারও পরিবারের তিন সদস্য হলে মাসে ৩০ কেজি চাল, ২৫ কেজি আটা, ৭ কেজি ডাল, ৬ লিটার তেল ও ৪ কেজি চিনি পেয়ে থাকেন। যদি পরিবারের সদস্য স্বামী-স্ত্রীসহ চারজন হলে প্রতি মাসে ৩৫ কেজি চাল, ৩০ কেজি আটা, ৮ কেজি ডাল, ৮ লিটার তেল ও ৫ কেজি চিনি পেয়ে থাকেন। স্বামী-স্ত্রীসহ সর্বোচ্চ দুই সন্তানের জন্য দেয়া হয় রেশন সুবিধা।