উখিয়াপাঠকের কলাম

আজ ঈদ নাকি?

“আগে কি সুন্দর দিন কাটাইতাম,
আগে কি সুন্দর ইদ কাটাইতাম”
~আহারে সত্যি তো আগে কতো সুন্দর না ছিলো ঈদের আগের রাতটা। কতো আনন্দ ছিলো ঈদের আগের রাতকে ঘিরে,
চাঁদ দেখা, হাতে মেহেদী লাগা থেকে শুরু করে।

~প্রতিটা সেকেন্ড কাটতো এই বলে, ” কখন রাত পোহাবে আর বাবা অথবা দাদুর বুড়ো আঙুলটা ধরে ঈদে যাবো, মা গরম পানি দিয়ে গোসল করিয়ে নতুন কাপড় পড়িয়ে দিয়ে সুগন্ধি মেখে দিয়ে হাতে পাঁচ বা দশ টাকা ধরিয়ে দিয়ে বলবে বাবা যাও ইদে যাও ইদের নামজ পড়ে আসো। আর আসার সময় পথের মধ্যে মুরব্বি দেখলে সালাম করিও আর বলিও “ঈদ মোবারক”। তোমার বন্ধুদের দাওয়াত দিও তোমাদের বাড়িতে আসতে বলিও। আর আমিও চলে যেতাম বাবার সে বুড়ো আঙুলটা ধরে ঈদে।

~আজও যে ইদ তাতে আমার কোন সন্দেহ নেই। তবে সন্দেহ আছে আমার মনের ভেতর ঈদকে নিয়ে আশা প্রত্যাশা নিয়ে। সে মায়ের গরম পানি দিয়ে গোসল করিয়ে দেওয়া নিয়ে। নতুন কাপড় পড়বো ঠিকই তবে মনের ভেতর সন্দেহ আছে বাবার বুড়ো আঙুলটা ধরে ঈদে যাওয়া নিয়ে। এখন যে আগের মতো মনের ভেতর ইদ নিয়ে উত্তেজনা কাজ করেনা। মুরব্বিদের সালাম করার পর তাঁদের হাত পকেটের দিকে যায় কিনা তার জন্য আমার আড়চোখে চাহনিও আর থাকেনা । শুধু আমার না আমার মতো আমার অনেক সমবয়সীর বেলায়ও হয়তো এমনই হয়।

~হওয়ার তো কথা, কারণ এখন যে, সব কিছু আগের মতো থাকলেও বয়সটা আর আগের মতো নেই। আমরা বড় হয়েছি অনেক বড় হয়েছি। তবে সত্যি কি আমরা বড় হয়েছি?

অনুভূতিগুলো পাল্টেছে লজ্জাও বেড়েছে। তাই হয়তো বাবারও লজ্জা করে বুড়ো আঙুলটা ধরিয়ে আমাকে ঈদে নিয়ে যেতে । কারণ ছেলে বড় হয়েছে অনেক বড় হয়েছে। তবে কি ছেলে সত্যি বড় হয়েছে? হুম, বড় হয়েছে। তবে বড় হলেও কি তার ইচ্ছে শক্তি মরে গিয়েছে? নাকি লজ্জার কাছে বয়সের কাছে সমাজের মাঝে ঈকে ঘিরে আমাদের অনুভূতিগুলো হারিয়ে যাচ্ছে?

~তবে এই ব্যাপারে হয়তো মতবাদের ভিন্ন মত থাকবে। কেউ কেউ হয়তো হাসাহাসিও করবে। তবে কেউ কি তার শৈশবের কাটানো ইদকে ঘিরে মধুর স্মৃতি ভুলে যেতে পারবে?

~হুম, জানি কেউ পারবেনা,
পারার কথাও না। হয়তো এমন কঠোর হৃদয়ের মানব আল্লাহ তালা এই পৃথিবীতে পাঠাই নাই। হয়তো আমার মতো সবার ইচ্ছে হচ্ছে আগের মতো ঈদ কাটাই, মা’র দেওয়া পাঁচ টাকা দশ টাকা নিয়ে ঈদে ঘিয়ে কলা, মুড়ি মিঠাই খাই। কিন্তু গত রমজানের ঈদ আর এইবারের কোরবানের ইদের আনন্দের পুরোটাই মহামারী করোনার কাছে বন্দী। তাই এইবারেও আর শৈশবের মতো করে ঈদ করা হবে না। কোলাকুলি করে সালামি নেওয়া হবেনা। তবে আশা রাখি এই করোনা একদিন চলে যাবে।
কারণ,
“পৃথিবীতে কিছু স্থায়ী না,
এমনকি আমাদের সমস্যাগুলো না।”
~একদিন পৃথিবী সুস্থ হবে শিশুরা হাসবে খেলবে আর আমরাও সে শৈশবের মতো ইদে যাবো আর সুন্দর মতো ইদ কাটাবো । সবার সাথে আনন্দ বিনিময় করবো কোলাকুলি করবো । আর বলবো, ” ঈদ মোবারক”

তখন হয়তো আর মনে হবে না “আজ ঈদ নাকি?

~সবাইকে পবিত্র ইদুল আযহার শুভেচ্ছা। ঈদ মোবারক। সাবধানতা বজায় রেখে ইদকে উপভোগ করুন।

সাকিব চৌধুরী নয়ন,
ভালুকিয়া পালং, উখিয়া।

Comment here