আন্তর্জাতিকধর্ম

আল-আকসায় ১৪০ জনের ইসলাম গ্রহণ

আল আকসা মসজিদ। ছবি: সংগৃহীত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, রাইজিং কক্স : পৃথিবীব্যাপী সব অত্যাচার নির্যাতনের মাঝেও বছরজুড়ে ইসলাম ও মুসলমানদের রয়েছ অনেক সাফল্য। ইসলামের আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে বিভিন্ন দেশ ও জাতিতে ইসলাম গ্রহণের ধারাবাহিকতা অন্যান্য বছরের তুলনায় বেড়েই চলেছে। বিদায় নেয়া ২০১৯ সালে বিশ্বের নানা প্রান্ত থেকে পবিত্র মসজিদ আল-আকসায় এসে ২৪০ জন ব্যক্তি ইসলাম গ্রহণ করেছেন।

সারাবিশ্বে মুসলিমদের চরম সংকটের মাঝেও ইসলাম ধর্ম গ্রহণের আগ্রহ উদ্দীপনায় কিছুমাত্র ভাটা পড়েনি। ইসরাইলি বাহিনীর চরম অত্যাচার-নির্যাতনও ফিলিস্তিন ও জেরুজালেমে ইসলাম গ্রহণের অব্যাহত ধারাকে রুখতে পারেনি। নিঃসন্দেহে এসব ঘটনা ইসলামের বিজয়ের আগাম বার্তা।

২০১৯ সালে পুরো বছরজুড়েই বিশ্বের নানা প্রান্তে মুসলিমরা ছিল অত্যাচার-নির্যাতনে জর্জরিত। যার প্রমাণ রাখাইনের রোহিঙ্গা নির্যাতন, জম্মু-কাশ্মীরের অধিকার হরণ, নিউজিল্যান্ডের মসজিদে সন্ত্রাসী হামলা, নরওয়েতে কুরআনের ওপর আক্রমণসহ ভারতে শুরু হওয়া মুসলিমবিরোধী সব কালো পরিকল্পনা।

মুসলমানরা বেদনা ও হতাশায় বছর পার করলেও মুসলমানদের জন্য ভয়, হতাশা ও দুর্দশার আড়ালে সূর্য হাসলো। নির্যাতিত ফিলিস্তিন ও জেরুজালেমের আল-আকসায় ২০১৯ সালেও ২৪০ জন সৌভাগ্যবান ব্যক্তি পবিত্র ধর্ম ইসলাম গ্রহণ করেছেন বলে খবর দিয়েছে ফিলিস্তিনভিত্তিক গণমাধ্যম আল কুদস। তামিলনাড়ুর দলিত সম্প্রদায়ের ৩ হাজার লোকের ইসলাম গ্রহণের ঘোষণাও এসেছে ২০১৯ সালের ডিসেম্বরের শেষ দিকে। ৫ জানুয়ারি ২০২০ সাল থেকে সেখানে পুরো গ্রামের লোকেরা ধাপে ধাপে গ্রহণ করবে পবিত্র ধর্ম ইসলাম।

উল্লেখ্য যে, ২৪০ জনের মধ্যে অধিকাংশই খ্রিষ্টান ধর্ম ত্যাগ করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন। ফিলিস্তিনের সর্বোচ্চ দাঈ ও ওলামা পরিষদ অ্যাসোসিয়েশন অফ ইসলামিক স্কলারস-এর চেয়ারম্যান শায়খ ইকরিমা সাবরি আল-আকসা গণমাধ্যমে এ সুখবর জানায়।

Comment here