কক্সবাজারে ইউনিসেফের অর্থায়নে আয়োজিত চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার ফল প্রকাশ

রাইজিং কক্স ডেস্ক : কোভিড-১৯ রোধে গত বছরের মার্চ থেকে সারাদেশে বন্ধ ছিল সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। এ সময়টা শিক্ষার্থীদের ঘরে বসেই দিন কাটাতে হয়েছে। তবে গৃহবন্দী এ সময়টা কাজে লাগাতে ‘ইউনিসেফ-’ এর কমিউনিকেশন ফর ডেভলপমেন্ট (সিফরডি) প্রকল্পের অর্থায়নে কক্সবাজারের শিক্ষার্থীদের জন্য চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা আয়োজন করে নিউইয়র্কভিত্তিক কমিউনিটি বেইজড পাবলিক আর্ট অর্গানাইজেশন ‘আর্টুলুশন’।

প্রতিযোগিতায় টেকনিক্যাল পার্টনার হিসাবে কাজ করেছে কক্সবাজারের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘ইয়াসিদ’।

‘ঘরে বসে ছবি আঁকি’ এই শিরোনামে প্রতিযোগিতার বিষয়বস্তু ছিল ‘প্রকৃতি ও করোনাকালীন জনজীবন’। গত ২৯ ডিসেম্বর থেকে শুরু হয়ে শেষ হয় চলতি বছরের ১১ জানুয়ারি। আর পুরস্কার বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয় ১৩ জানুয়ারি।

এই প্রতিযোগিতায় কক্সবাজারের জেলা থেকে ২৫০-এর অধিক প্রতিযোগী অংশ গ্রহণ করে।

এ চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার বিচারক মণ্ডলীতে ছিলেন – সৈয়দ তারেক রহমান (খন্ডকালীন শিক্ষক, ভাস্কর্য বিভাগ চারুকলা অনুষদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়), শারমিন জাহান খান (ক্রিয়েটিভ আর্ট ডিরেক্টর আর্টুলুশন এবং ইউনিসেফ C4D প্রকল্প ) , শিল্পী আখিনুর বিনতে আলী (ভিজ্যুয়াল আর্টিস্ট) , আনোয়ারা বেগম (কমিউনিটি টিচিং আর্টিস্ট)।

বিচারক মণ্ডলী প্রতি বিভাগ থেকে প্রথম, দ্বিতীয় এবং তৃতীয় সেরা চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগী নির্ধারণ করেন। একই সাথে নির্বাচিত সেরা ছবিগুলো ‘ইউনিসেফ’ এবং ‘আর্টুলুশন’ এর বার্ষিক প্রকাশনীতে প্রদর্শিত হবে।

‘ক’ গ্রুপ:
১ম পুরষ্কার পেয়েছে- সুফিয়া আক্তার, জালিয়া পালং উচ্চ বিদ্যালয়।

২য় পুরষ্কার – মার্জিয়া হক তাজনিম, আবুল কাশেম নুর জাহান উচ্চ বিদ্যালয়।

৩য় পুরষ্কার পেয়েছে ২ জন – পূজা বডুয়া অ্যানি, পালং উচ্চ বিদ্যালয় এবং সাদিয়া বিনতে কালাম, পালং উচ্চ বিদ্যালয়।

খ গ্রুপ :
১ম পুরষ্কার পেয়েছে- তফিনা আক্তার বেবি (দশম শ্রেণী), জালিয়া পালং উচ্চ বিদ্যালয়।

২য় পুরষ্কার – জেসমিন আক্তার জিন্নাত (দশম শ্রেণি), জালিয়া পালং উচ্চ বিদ্যালয়।

৩য় পুরষ্কার – সাহারা ইয়াসমিন চুমকি (দমশ শ্রেণি), জালিয়া পালং উচ্চ বিদ্যালয়।

রাইজিংকক্স.কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।