ঈদগাঁওতে আ.লীগের দুই গ্রুপের পাল্টাপাল্টি সভা, সংঘর্ষের আশংকা

আনোয়ার হোছাইন, ঈদগাঁও : কক্সবাজার সদরের ঈদগাঁও বাজারে পাশাপাশি স্থানে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামীলীগের দুই প্রতিপক্ষের পাল্টা সভা আহ্বানকে কেন্দ্র করে তীব্র উত্তেজনা বিরাজ করছে।

এনিয়ে দুই রাজনৈতিক প্রতিপক্ষের পাশাপাশি সচেতন জনগণের মধ্যে আতংক দেখা দিয়েছে। অনেকে তীব্র সংঘর্ষের আশংকা প্রকাশ করছে।এদিকে সোমবার বিকাল থেকে জালালাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইমরুল হাসান রাশেদের গ্রুপ মঙ্গলবার(১৯ জানুয়ারী) বিকালে ঈদগাঁও বাজারের শাপলা চত্বরে কক্সবাজার বিমানবন্দরে হামলায় জড়িতদের গ্রেফতারের দাবিতে প্রতিবাদ সভার ঘোষণা দিয়ে এলাকায় মাইক যোগে প্রচারণা চালাচ্ছে । অপরদিকে সদর আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল করিম মাদু’র নেতৃত্বে অপর দলও একই স্থানের ১০ গজের মধ্যে পাল্টা সভার ডাক দিয়ে মাইক যোগে প্রচারণা চালাচ্ছে। অদ্ভুত পরিস্থিতিতে ঈদগাঁও পুলিশের আইসি(পরিদর্শক)আবদুল হালিম সন্ধ্যায় সভাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

উল্লেখ্য, গত রবিবার বিকালে কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়াকে কক্সবাজার বিমান বন্দরে বরণ করতে গেলে উভয় গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।এর জেরে ইমরুল হাসান রাশেদ গ্রুপ ঐদিন বিকাল ৫ টা থেকে রাত সাড়ে ৭ টা পর্যন্ত মহাসড়কের ঈদগাঁও বাস-স্টেশনে অবস্থান নিয়ে সড়কের উপর প্রতিবাদ সমাবেশ করে,হামলার জন্য সদর আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদককে দায়ী করে বক্তব্য দেয়।পরে রাত সাড়ে ৭ টার দিকে জেলা পুলিশ পৌঁছে সড়কের উভয় পাশে আটকে পড়া শত শত যান চলাচল স্বাভাবিক করে।এদিকে সংঘটিত ঘটনার জন্য এক গ্রুপ অপর গ্রুপকে দায়ী করে ক্ষমতাসীন দলের উভয় গ্রুপ মুখোমুখি অবস্থান নিয়েছে ।

এ বিষয়ে জানতে ঈদগাঁও পুলিশের আইসি (পরিদর্শক) আবদুল হালিমের সাথে যোগাযোগ করা হলে জানান,যাতে অপ্রীতিকর কোন ঘটনা না ঘটে সে জন্য উভয় গ্রুপকে সভা না করতে বলা হয়েছে এবং প্রশাসন সতর্ক দৃষ্টি রেখেছে।

রাইজিংকক্স.কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।