ঈদগাঁওয়ে মা-মেয়ে জোড়া খুনের ঘাতক সিআইডির হাতে আটক

আটক আবুল কালাম

আনোয়ার হোছাইন, ঈদগাঁও : কক্সবাজারের ঈদগাঁওয়ে আলোচিত মা-মেয়ে জোড়া খুনের ঘাতক অবশেষে সাইডির জালে আটকা পড়েছে।সংশ্লিষ্ট সূত্রে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।

তবে অভিযান পরিচালনাকারী কতৃপক্ষ বিষয়টি সোমবার (১ ফেব্রুয়ারী) দুপুর নাগাদ গণমাধ্যমে বিস্তারিত তুলে ধরবেন।

সূত্রে প্রকাশ, ঈদগাঁওয়ে সম্প্রতি জায়গা বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের হাতে নৃশংস ভাবে খুন হওয়া মা-মেয়ের জোড়া খুনের মামলার প্রধান আসামীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

রোববার (৩১ জানুয়ারি) বিষয়টি নিশ্চিত করেন সিআইডির সিনিয়র এএসপি (মিডিয়া) জিসানুল হক জিসান। ঘটনাস্থলের ইউপি সদস্য ও ইসলামাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলামও আটকের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, কক্সবাজারের আলোচিত মা-মেয়ে হত্যার মূল অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে সিআইডি। এ বিষয়ে বিস্তারিত সোমবার (১ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১২টায় সিআইডির সদর দপ্তরে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে জানানো হবে।

উল্লেখ্য, গত ১৯ জানুয়ারি রাতে ৮টার দিকে কক্সবাজারের ঈদগাঁও থানাধীন ইসলাবাদ ইউনিয়নের চরপাড়ায় জায়গা বিরোধের জেরে এলাকার আজিজুল বাবুর্চির স্ত্রী রাশেদা বেগম (৩২) ও তার মেয়ে স্কুল শিক্ষার্থী জান্নাতুল ফেরদৌস (১৩) ঠান্ডা মাথায় উপুর্যুপরি কুপিয়ে খুন করে একই এলাকার জাফর আলমের ছেলে আবুল কালাম ও তার নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা। ঘটনার পরপরই খুনির দল পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। আলোচিত এ খুনের ঘটনায় মামলা রজু হয় ঈদগাঁও থানায়।পরবর্তীতে মামলার গুরুত্ব বিবেচনা করে তদন্ত ও খুনিদের আটকের স্বার্থে মামলার দায়ীত্ব অর্পিত হয় পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের অন্যতম শাখা সিআইডিতে।মামলাটি সিআইডিতে হস্তান্তরের পরপরই সংশ্লিষ্ট বিভাগের আন্তরিক প্রচেষ্টায় আলোচিত এ জোড়া খুনের ঘটনার ১৩ দিনের মধ্যেই প্রধান আসামীকে আটকের সংবাদে জনগণ স্বস্তি প্রকাশ করেছে। তারা বিগত মাস পাঁচেকের মধ্যে ঈদগাঁও থানা ও তার আশপাশ এলাকায় ঘটে যাওয়া আরো তিনটি খুনের ঘটনায় জড়িত খুনিদের আটক ও মামলার অগ্রগতির জন্য মামলা গুলো সিআইডিতে হস্তান্তরের দাবি তুলেছে।

রাইজিংকক্স.কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।