উখিয়া

উখিয়ায় বিক্রি হচ্ছে রাক্ষুসে পিরানহা

পিরানহা। ছবিটি কোটবাজারের মাছ বাজার থেকে তুলেছেন মোঃ কলিম উল্লাহ।

এম.কলিম উল্লাহ, উখিয়া : উখিয়া উপজেলার কোটবাজারে অবাধে বিক্রি হচ্ছে নিষিদ্ধ মাছ পিরানহা। কিছু অসাধু মাছ ব্যবসায়ী চাঁদা মাছ বলে মাংসাশী পিরানহা ভোক্তাদের বিক্রি করছেন।

উপজেলার কোটবাজার ষ্টেশনের মাছ বাজারে দেখা যায় চাঁদা মাছের মতো দেখতে এই মাছকে কখনো সুন্দরী মাছ কখনো পুকুরের চাঁন্দা মাছ বলে সাধারণ ক্রেতাদের ধোকাদিয়ে বাজারে রাক্ষুসে পিরানহা মাছ বিক্রি করা হচ্ছে।

ক্রেতা আব্দুর রহমান বলেন প্রতিদিনের ন্যায় শনিবার বাজারে মাছ কিনতে গিয়ে চোখে পড়ে সামনে বড় বড় দাঁত ওয়ালা কিছু মাছ নিয়ে দুটি শিশু বিক্রি করছে। তাদের কাছে গিয়ে মাছের নাম জিজ্ঞেস করতেই কখনো সুন্দরী মাছ কখনো চাঁদা মাছ বলে নাম বলতে থাকে শিশু বিক্রেতা। মূলত শিশু দুটিকে দিয়ে রাক্ষুসে পিরানহা মাছ বিক্রি করা হচ্ছিল।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক মাছ বিক্রেতা জানান, কোট বাজারের বিশিষ্ট মাছ ব্যবসায়ী চকরিয়া থেকে তেলাপিয়া মাছের সাথে নিষিদ্ধ পিরানহা মাছ এনে দুইশো-আড়াইশো টাকা দরে বিক্রি করেছে।

পিরানহা মাছ চাষ ও বিক্রি সম্পর্কে জানতে চাইলে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা শেখ মোঃ এরশাদ বিন শহীদ বলেন ‘পিরানহা মাছ চাষ, পরিবহন ও বিক্রি সরকার নিষিদ্ধ করেছে। আমরা নিয়মিত বাজার মনিটরিং করে থাকি এরপরও যদি কেউ এই মাছ চাষ কিংবা বিক্রি করেন তাহলে তিনি অপরাধ করছেন এবং শীঘ্রই তাদের আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।

পিরানহা মাছ খাওয়ায় স্বাস্থ্যের ক্ষতি বিষয় জানতে উখিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিকল্পনা পরিচালক ডাঃ রঞ্জন বড়ুয়ার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন পিরানহা মাছ খাওয়ার পর ফুসফুসে ক্যান্সার,ব্রেন ক্যান্সার, স্ট্রোক সহ নানাবিধ জটিলরোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

সরকারী বিধি মোতাবেক বিক্রয় নিষিদ্ধ পিরানহা মাছ নির্মূলে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনকে অভিযান পরিচালনার দাবি জানিয়েছেন সচেতন মহল।

উল্লেখ্য, দক্ষিণ আমেরিকার আমাজন এলাকার রাক্ষুসে মাছ পিরানহা। হাঙ্গরের ন্যায় দাঁত বিশিষ্ট অত্যন্ত আক্রমণাত্মক এ মাছ জলজ পরিবেশ ক্ষতিগ্রস্ত করার পাশাপাশি মানুষকেও আক্রমণ করতে পারে। এরা দলবদ্ধ আক্রমণ নিমিষেই মানুষের প্রাণ কেড়ে নিতে সক্ষম।