উখিয়াসারাদেশ

উখিয়ায় ছুরিকাঘাতে যুবক খুন, গ্রেপ্তার ২

ছবি: রাইজিং কক্স

বিজ্ঞাপন

শফিক আজাদ, উখিয়া : উখিয়া উপজেলার রত্নাপালং ইউনিয়নের পূর্ব ভালুকিয়া তুলাতুলি গ্রামে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে এক যুবক নিহত হয়েছে। নিহত যুবকের নাম এনামুল হক (২০)। সে ভালুকিয়া তুলাতুলি গ্রামের বাদশা মিয়ার পুত্র।

এ ঘটনায় নিহতের পিতা বাদশা আলম বাদী হয়ে ৬জনের নামের মামলা দায়ের করেছে। যার নং-০৮, ০৮/১২/২০১৯ইং তারিখ। পুলিশ তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে ২ জন কে গ্রেফতার করেছে। এরা হলেন-ওই এলাকার শাহজাহানের ছেলে রেজাউল করিম (২০) এবং মৃত হাকিম আলী ছেলে অলি উল্লাহ(৬৭)।

জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার ধান ক্ষেতের মাঠে গরু বাধাকে কেন্দ্র করে নিহত যুবকের ফুফুর সাথে পাশ্ববর্তী শাহজাহানের পরিবারের তর্কবিতর্ক হয়। তর্কবিতর্কের এক পর্যায়ে নিহতের ফুফুর মাথা ফেটে আহত হলে উখিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনার জের ধরে শনিবার সন্ধ্যা ৭ টার দিকে শাহজাহান তার ছেলে রেজাউল,মিযান, অলি উল্লাহ সহ অন্যান্যরা বাজার থেকে ফেরার পথে পথিমধ্যে নিহত এনামুল পরিবারের সাথে পুনারায় সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। উভয় পক্ষের সংঘর্ষের এক পর্যায়ে ছুরিকাঘাতে এনামুল মাঠিতে লুটিয়ে পড়ে। পরিবর্তেতে সংজ্ঞাহীন অবস্থায় উখিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসা হলে কর্তব্যরত ডাক্তার এনামুলকে মৃত ঘোষনা করেন।

সংঘর্ষে নিহতের ফুফুতো ভাই, আলী আকবরের ছেলে সাদেক হোসেনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

রত্নাপালং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান খাইরুল আলম চৌধুরী বলেন,তুচ্ছ একটি ঘটনা নিয়ে এরকম মর্মান্তিক মৃত্যু কাম্য নয়। তাই এ ধরনের ঘটনার সাথে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী করছি।

নিহতের চাচা মনজুর আলম বলেন, শাহাজাহান, অলি উল্লাহ, রেজাউল ও মিযান মিলে আমার ভাতিজা এনামুলকে হত্যা করেছে। তিনি খুনিদের কঠোর শাস্তি দাবী করেন। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানান।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই শিম্পু বড়ুয়া জানান, ঘটনায় জড়িতদের মধ্যে ২জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তৎমধ্যে গ্রেফতারকৃত ১জন হাসপাতালে রয়েছে। বাকীদের আসামীদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন।

উখিয়া থানার ওসি আবুল মনসুর বলেন, এ ঘটনায় ৬জনকে নামীয় এবং ৩/৪জনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করে মামলা রুজু করা হয়েছে। আর নিহতের লাশ ময়না তদন্ত শেষে পরিবারের কাছে দাফনের জন্য হস্তান্তর করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন