উখিয়ায় ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম শুরু: রোহিঙ্গা ঠেকাতে সতর্ক প্রশাসন

উখিয়া সংবাদদাতা : রোহিঙ্গা অধ্যুষিত জনপদ উখিয়া উপজেলার ৫টি ইউনিয়নের গত রোববার থেকে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম শুরু করেছে নির্বাচন কমিশন। চলবে ৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। ভোটার তালিকায় অনত্মর্ভুক্তির জন্য বিভিন্ন শ্রেণির যুবক ও অভিভাবক তাদের ছেলেমেয়েদের ভোটার করার জন্য বেশ তৎপর হয়ে উঠতে দেখা গেছে। সৃষ্টি হয়েছে একটি উৎসবমুখর পরিবেশ। তবে পরিপূর্ণ তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ করতে ব্যর্থ হওয়ায় অনেকেই হতাশ হয়ে পড়েছেন। বেশিরভাগ ভোটাদের অভিযোগ, নিবন্ধনের অভাবে তারা ভোটার তালিকায় অনত্মর্ভুক্তির আশা এক প্রকার ছেড়ে দিয়েছে।

উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোটারদের তথ্য সংগ্রহের জন্য ৬১জন তথ্য সংগ্রহকারী ও ১৪ জন সুপারভাইজার নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। তাদেরকে পর্যাপ্ত প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। যাতে ভোটার তালিকায় ভুলক্রমে বা প্রভাবিত হয়ে কোন রোহিঙ্গা নাগরিক ভোটার তালিকায় অনর্ত্মভুক্ত হতে না পারে। উখিয়া টেকনাফের নির্বাচন অফিসার মো. বেদারুল ইসলাম জানান, ২৪ প্রকারের তথ্য উপাত্ত সম্বলিত সনাক্তকারী ভোটার হতে ইচ্ছুক ২০০৪ এর ১ জানুয়ারি যাদের জন্ম তাদেরকে ভোটার তালিকায় অনত্মর্ভুক্ত করা হবে। তবে রোহিঙ্গাদের ভোটার তালিকায় অনত্মর্ভুক্তির ব্যাপারে কেউ যদি সহযোগিতা করে তার বিরম্নদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ সংক্রান্ত দিক নির্দেশনা তথ্য সংগ্রহকারী ও সুপারভাইজারদের দেওয়া হয়েছে। রাজাপালং ইউনিয়নের ৬নম্বর ওয়ার্ডে কর্মরত তথ্য সংগ্রহকারী মাস্টার ফরিদ আলম জানান, তিনি তথ্য সংগ্রহের ১ম দিন অর্থাৎ গত রোববার সকাল থেকে প্রায় ৫০টি পরিবারে গিয়ে তথ্য উপাত্ত না থাকার কারনে একজন ভোটারকেও রেজিস্ট্রেশন করতে পারেননি। তিনি বলেন, বেশিরভাগ ভোটার নিবন্ধন না হওয়ার আশংকায় ভুগছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে রাজাপালং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী জানান, ২০১৭ সালে ২৫ শে আগস্ট এ দেশে রোহিঙ্গা আগমনের পরপরই নিবন্ধন সার্ভার বন্ধ হয়ে গেছে। এ ব্যাপারে উধ্বর্তন মহলে বেশ কয়েকবার তদবির করেও কোন কাজ হয়নি। জন্ম নিবন্ধন জট খোলার ব্যাপারে তিনি স্থানীয় প্রশাসন ও উচ্চ পর্যায়ে বিভিন্ন দপ্তরে আলোচনা করেছেন। তারপরও কোন কাজ হয়নি।

ভোটার তালিকা যাচাই বাছাই কমিটির আহবায়ক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নিকারুজ্জামান চৌধুরী বলেন, ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রমে যাতে রোহিঙ্গা নাগরিক অনত্মর্ভুক্ত হতে না পারে। সে ব্যাপারে সরকার প্রয়োজনীয় সংখ্যক তথ্যাবলী সম্বলিত ফরম সরবরাহ করেছে। তারপরও কেউ যদি রোহিঙ্গাদের সহায়তা করে তার বিরম্নদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নতুম ভোটার হতে হলে যা যা প্রয়োজন, জেনে নিন…

রাইজিংকক্স.কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।