উখিয়াশিক্ষাঙ্গন

উখিয়ায় ৫শত শিক্ষার্থীদের মাঝে কম্বল বিতরণ

ছবি: সংগৃহীত

নিজস্ব প্রতিবেদক : কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার রত্নাপালং ইউনিয়নের  ১৮ টি হেফজ খানা ও এতিমখানায় অধ্যায়নরত শিক্ষার্থীদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে।

নতুন বছরের প্রথম দিনে রাতে কোরআন পড়ুয়া শিশু  এতিম ও দুস্থ শিক্ষার্থীদের হাতে কম্বল তুলে দেন উখিয়া উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা মোহাম্মদ নিকারুজ্জামান চৌধুরী ও রত্নাপালং ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান খাইরুল আলম চৌধুরী। রাতে কম্বল পেয়ে শীতার্ত  গরীব শিশু শিক্ষার্থীরা মন ভরে খুশিতে মেতে উঠে।

উপজেলা প্রশাসনের সহায়তায় ও রত্নাপালং ইউনিয়ন পরিষদের ব্যবস্থাপনায় গত বুধবার রাতেই এসব শীত বস্ত্র বিতরণ করা হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিকারুজ্জামান চৌধুরী ও রত্নাপালং ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান খাইরুল আলম চৌধুরী বলেন অসহায় ও অনাথ শিশু শিক্ষার্থীদের হাতে শীতবস্ত্র দিতে পেরে বেশ ভালোই লেগেছে। ভবিষ্যতে সুযোগ পেলে আরো দেওয়া হবে।

এ সময় মেম্বার ডাক্তার মোকতার আহমদ, মেম্বার মাহবুবুল আলম মেম্বার কামাল উদ্দিন, সাংবাদিক ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

রত্নাপালং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান খাইরুল আলম চৌধুরী জানান খোন্দকার পাড়া, ভালুকিয়া পালং (বেলুয়া বাপের পাড়া) থিমছড়ি,মাঝের পাড়া,  আমতলী, তুলাতুলি , চাকবৈটা, গয়ালমা, কামারিয়ার বিল,  বায়তুশ শরফ, রহুল্লার ডেবা, তৈলী পাড়া, রত্না পালং, পশ্চিম রত্না, রুমখা বাজার সহ বিভিন্ন এলাকায় স্থাপিত ১৮  টি মাদ্রাসায় পরিচালিত হাফেজ খানা ও এতিমখানায় অধ্যায়নরত ৫ শতাধিক দুস্থ গরিব  শিশু শিক্ষার্থীদের মাঝে কম্বল বিতরণ করা হয়ছে।

তিনি এই সময় উপস্থিত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে বেশ কয়েকটি হেফজ খানা ও এতিমখানার অবকাঠামো উন্নয়নে  অনুরোধ করেন ।

এদিকে উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা মোহাম্মদ নিকারুজ্জামান চৌধুরী শীতার্ত শিশু শিক্ষার্থীদের মাঝে কম্বল বিতরণ করতে এসে হেফজখানা ও এতিমখানায় উন্নয়নেও প্রতিশ্রুতি দেন।