কক্সবাজারপ্রধান সংবাদ

‘কক্সবাজারে রেল চলাচল শুরু হলে পর্যটন শিল্প ও অর্থনীতির জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে’

রাইজিং কক্স ডেস্ক : রেলমন্ত্রী মো: নুরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কক্সবাজারকে একটি পরিপূর্ণ আন্তর্জাতিকমানের পর্যটন নগরী হিসেবে গড়ে তোলার পরিকল্পনা নিয়েই কাজ করছেন।

ঢাকা থেকে কক্সবাজার রেল চলাচল শুরু হলে দেশের পর্যটন শিল্পে ও অর্থনৈতিক খাতে এক বৈপ্লবিক পরিবর্তন ঘটবে।

শনিবার (১২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে বাস্তবায়নাধীন কক্সবাজার রেলওয়ে স্টেশন, দোহাজারী-কক্সবাজার ডুয়েল গেজ রেললাইন নির্মাণ প্রকল্প এলাকা পরিদর্শন শেষে সংক্ষিপ্ত এক অনুষ্ঠানে রেলপথ মন্ত্রী এসব কথা বলেন।
এসময় কক্সবাজার সদরের ঝিলংজা হাজিপাড়া, রামু ফতেখাঁরকুলসহ বিভিন্ন স্থানে কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন করেন মন্ত্রী। এছাড়া বাস্তবায়নাধীন রেল স্টেশনের কার্যক্রমের অগ্রগতি দেখে সন্তোষ প্রকাশ এবং জেলা প্রশাসনের কর্মকাণ্ডের প্রশংসা করেন তিনি।

সেখানে আয়োজিত অনুষ্ঠানে মন্ত্রী বলেন, ২০২২ সালের ৩০ জুনের মধ্যে প্রকল্প সমাপ্ত ও ঢাকা হতে কক্সবাজার পর্যন্ত রেল চলাচল চালু হবে। তার আগে ক্ষতিগ্রস্তদের টাকা যথানিয়মে হস্তান্তর করা হবে। ক্ষতিগ্রস্ত কেউ ক্ষতিপূরণের বাইরে থাকবে না।

বক্তব্য শেষে প্রকল্পের ভূমি অধিগ্রহণের ফলে ক্ষতিগ্রস্ত ৫ জন ভূমি মালিককে প্রায় ১ কোটি টাকার ক্ষতিপূরণের চেক প্রদান করেন রেলপথ মন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন।

এসময় ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ আশরাফুল আফসার, প্রকল্প পরিচালক মো: মফিজুর রহমান, রেলওয়ের অতিরিক্ত মহাপরিচালক ধীরেন্দ্রনাথ মজুমদার, ভূমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তা শামীম হোসেন, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহম্মদ মাহমুদ উল্লাহ মারুফ, রেলওয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ প্রকল্প ও ভূমি অধিগ্রহণ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে, রেলপথ মন্ত্রী মো: নুরুল ইসলাম সুজন ২ দিনের সফরে শুক্রবার (১১ সেপ্টেম্বর) কক্সবাজার আসেন। বেসরকারি একটি বিমানযোগে বেলা ১১টায় কক্সবাজার বিমানবন্দরে পৌঁছান তিনি। বিকেলে ‌’দোহাজারী-কক্সবাজার ডুয়েলগেজ রেললাইন নির্মাণ প্রকল্প’ এর ভূমি অধিগ্রহণ সংক্রান্ত মতবিনিময় সভা করেন। শনিবার ‘রেললাইন নির্মাণ প্রকল্প’ কাজের অগ্রগতি সরেজমিনে পরিদর্শন শেষে বিকেলে সড়কপথে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন মন্ত্রী।