কক্সবাজার সৈকতে তৈরি হলো বঙ্গবন্ধুর সর্ববৃহৎ ভাস্কর্য

শাহ্‌ মুহাম্মদ রুবেল : দেশব্যাপী ভাস্কর্য বিরোধী মৌলবাদীদের তুমুল বিরোধীতার মুখে কুষ্টিয়ায় ভাস্কর্য ভাঙ্গার প্রতিবাদে বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষে কক্সবাজার সৈকতের বালিয়াড়িতে তৈরি হয়েছে ১০ ফুট উচ্চতার বঙ্গবন্ধুর বালু ভাস্কর্য।

সৈকতের লাবনী পয়েন্টে জেলা প্রশাসনের সহায়তায় প্রায় ৮ লাখ টাকা ব্যায়ে ব্র্যান্ডিং কক্সবাজার নামে একটি স্থানীয় প্রতিষ্ঠান সর্বপ্রথম এই বিশালাকার বালু ভাস্কর্যটি নির্মাণ করছে।

জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন বলেন, এই বালু ভাস্কর্য নির্মানের পেছনে দেশ বাসীর প্রতি একটিই বার্তা, পৃথিবী যতদিন আছে ততদিন জাতির পিতার অস্তিত্ব ঠিকে থাকবে।

ব্রান্ডিং কক্সবাজারের চেয়ারম্যান ইশতিয়াক আহমেদ জয় বলেন, বালিয়াড়িতে ভাস্কর্য নির্মানের মূল উদ্দেশ্য হলো মহান বিজয় দিবসে কুষ্টিয়ায় ভাস্কর্য ভাঙ্গার প্রতিবাদ ও মৌলবাদীদের জাতির জনকের ভাস্কর্য বিরোধী মনোভাবের বিরোধীতা করেই এই আয়োজন।

ভাস্কর কামরুল ইসলাম শিপনের নেতৃত্বে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের শিক্ষার্থীদের ১০ সদস্যের একটি টিম এই ভাস্কর্য নির্মাণে দিনরাত কাজ করে যাচ্ছে গত ৫দিন যাবত।

ভাস্কর কামরুল ইসলাম জানান, দুটি বালু ভাস্কর্য এখানে তৈরি হচ্ছে একটি বঙ্গবন্ধুর ফ্রি স্ট্যান্ডিং, অপরটি রিলিফ ভাস্কর্য। আজ (মঙ্গলবার) এর মধ্যে ভাস্কর্য সম্পূর্ণ হবে বলে আশাবাদী। এই ভাস্কর্য দেখে সৈকতে আগত দর্শনার্থীদের ভ্রমনে যুক্ত হবে আনন্দের একটি ভিন্ন মাত্রা। এমনটিই প্রত্যাশা টিমের সকল শিল্পীদের।

আগামী ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত এই ভাস্কর্যগুলো দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত থাকবে এরপর এগুলো ভেঙ্গে ফেলা হবে বলে দাবী আয়োজকদের।

রাইজিংকক্স.কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।