আন্তর্জাতিকপ্রধান সংবাদ

করোনাভাইরাস সোয়াইন ফ্লুর চেয়ে ১০ গুণ ভয়াবহ : বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

অনলাইন ডেস্ক: করোনা ভাইরাসকে সোয়াইন ফ্লুর চেয়ে ১০ গুণেরও বেশি ভয়াবহ বলে অভিহিত করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। নিশ্চিত করে তারা বলেছে, এক দশক আগে বিশ্বজুড়ে সোয়াইন ফ্লুর প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছিল।

এখন পরীক্ষায় করোনা ভাইরাসকে তার চেয়ে ১০ গুণেরও বেশি ভয়াবহ দেখা দিয়েছে। ২০০৯ সালের জানুয়ারি থেকে ২০১০ সালের আগস্ট পর্যন্ত বিশ্বের বিভিন্ন দেশে সোয়াইন ফ্লুর প্রাদুর্ভাব দেখা দেয়। তাতে আক্রান্ত হন কমপক্ষে ১৬ লাখ মানুষ। মারা যান ১৮ হাজার ৪৪৯ জন।

এ খবর দিয়ে লন্ডনের দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট পত্রিকা লিখেছে, এখন করোনা ভাইরাস সংক্রমণ নিয়ে সতর্কতা দিয়েছেন বিশ^ স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান কর্মকর্তা টেডরোস আধানম ঘেব্রেয়েসাস। তিনি বলেছেন, করোনা ভাইরাস মহামারি বিশ^কে গ্রাস করেছে।

সোয়াইন ফ্লু বা এইচ১এন১ বিশ্বের যে ক্ষতি করেছিল, যে পরিমাণ মানুষ মেরেছিল, তার দশগুণ ক্ষতি এবার করে দিয়েছে করোনা ভাইরাস। ঘেব্রেয়েসাস বলেছেন, অনেক দেশ থেকে এই ভাইরাসের পরিষ্কার চিত্র, তাদের আচররণ, কিভাবে তা থামানো যায় এবং কিভাবে এর প্রেক্ষাপটে ব্যবস্থা নেয়া যায়, তার তথ্যপ্রমাণ আসছে।
আমরা জানি করোনা ভাইরাসের বিস্তার খুব দ্রুতগতির।

আরো জানি, এটা ভয়াবহ। ২০০৯ সালের ফ্লু মহামারির চেয়ে এটা ১০ গুণ ভয়াবহ। আমরা আরো জানি এই ভাইরাস দ্রুত বিস্তার লাভ করতে পারে বেশি মানুষ যেখানে সমবেত হয় সেসব স্থানে। আমরা আরো জানি এই ভাইরাসের বিস্তার রোধে আমাদের আগেভাগে পরীক্ষা করা উচিত, আইসোলেশনে যাওয়া উচিত, প্রতিটি আক্রান্ত মানুষের সেবা দেয়া উচিত এবং প্রতিজন সংক্রমিত ব্যক্তিকে চিহ্নিত করা উচিত।

আমরা আরো জানি, কিছু দেশে তিন থেকে চার দিনের মধ্যে আক্রান্তের হার দ্বিগুন হচ্ছে। আরো দেখা গেছে যে হারে বিস্তার হয় এর, কমে তার চেয়ে ধীর গতিতে।