গণমাধ্যমশিক্ষাঙ্গন

গণমাধ্যমে কর্মী ছাঁটাইয়ের প্রতিবাদে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে মানববন্ধন

খুবি সংবাদদাতা : করোনা মহামারী এই সময়ে অমানবিকভাবে গণমাধ্যম কর্মীদের চাকরিচ্যুত করার প্রতিবাদে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা ডিসিপ্লিনের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে। গত শনিবার, বিকেল পাঁচটায় খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে ‘গণমাধ্যমে কর্মী ছাঁটাই অবিলম্বে বন্ধ কর’ স্লোগানে সবাই মানববন্ধনে অংশ নেয়।

মানববন্ধনে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা ডিসিপ্লিনের শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি ডিসিপ্লিনের সহকারী অধ্যাপক মামুন-উর-রশিদ, সহকারী অধ্যাপক ছোটন দেবনাথ, প্রভাষক শরীফুল ইসলাম সূর্য ও প্রভাষক মাজিদুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন। শুরুতে যথাক্রমে প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী মৌসুমী আফরোজ, দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ইমরান ইসলাম মামুন, চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী মীর হাসিব এবং মাস্টার্সের শিক্ষার্থী ইয়াসিন আহমেদ জিবু ও মতিউর রহমান বক্তব্য রাখেন।

বক্তারা বলেন, চিকিৎসক, পুলিশ কিংবা সামরিক বাহিনীর সদস্যদের মতোই সাংবাদিকেরা এই ভয়াবহ পরিস্থিতিতে নিজেদের জীবনের সংকট উপেক্ষা করে গণমাধ্যমকে সচল রেখেছেন। তাদের প্রতি এমন অবিচার করা হলে তাদের পরিবার দুর্দশার দায় কে নিবে। এরপর শিক্ষকবৃন্দ মানববন্ধনের আয়োজন করায় শিক্ষার্থীদের সাধুবাদ জানান এবং বক্তব্য প্রদান করেন। জনাব শরীফুল ইসলাম সূর্য অবিলম্বে গণমাধ্যম কর্মীদের ছাঁটাই বন্ধ করা ও প্রয়োজনে বেতন কমানো এবং ব্যয় সংকোচনের পদ্ধতি অবলম্বন করতে বলেন। এছাড়াও তিনি প্রয়োজনে গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠানগুলোকে জরুরি বৈঠকে বসার আহ্বান জানান।

পরবর্তীতে জনাব মামুন-উর-রশিদ সমাপনী বক্তব্যের মাধ্যমে মানববন্ধনের সমাপ্তি ঘোষণা করেন। এছাড়াও, শিক্ষার্থীরা আজ রাত দশটায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে একযোগে নিজেদের প্রোফাইল ছবি হালনাগাদের মাধ্যমে গণমাধ্যম কর্মীদের পক্ষে নিজেদের অবস্থানের জানান দেন।

উল্লেখ্য, গত মার্চ থেকেই বিভিন্ন গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠান নানান অযৌক্তিক অজুহাতে গণমাধ্যম কর্মীদের চাকরিচ্যুত করছে। এখন পর্যন্ত প্রায় কয়েক হাজার গণমাধ্যম কর্মী চাকরি হারিয়ে নানা দুশ্চিন্তা ও দুর্দশায় দিন পার করছেন।