টেকনাফ

টেকনাফে গভীর জঙ্গল থেকে পাথর ভাঙ্গার মেশিন জব্দ

টেকনাফ সংবাদদাতা : টেকনাফের হ্নীলায় বনবিভাগ মোচনী বিটের অধীনে গভীর জঙ্গলে অভিযান চালিয়ে সরকারী নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে প্রভাব খাটিয়ে চোরাই পাহাড়ি পাথর ভাঙ্গার মেশিন জব্দ করেছে। দীর্ঘদিন এই কৌশলে পাথর পাচারকারীদের বিরুদ্ধে আইনী প্রক্রিয়ার প্রস্তুতি চলছে।

জানা যায়, ৬ এপ্রিল দুপুরে বিভাগীয় বন কর্মকর্তার নির্দেশে টেকনাফ বন রেঞ্জ কর্মকর্তা সৈয়দ আশিকের নেতৃত্বে বনবিভাগের লোকজন উপজেলার হ্নীলা রঙ্গিখালীর গভীর জঙ্গলে পাথর ভাঙ্গার মেশিন জব্দ করে। এসময় ২টি ডাম্পার গাড়ি পালিয়ে যায়। স্থানীয় মৃত এবাদুল্লাহর পুত্র জুহুর আলম ও আব্দু শুক্কুরের পুত্র হেলাল উদ্দিনের নেতৃত্বে একটি প্রভাবশালী মহল সরকারী পাহাড়ি পাথর বিভিন্ন স্থাপনায় সরবরাহ করে আসছে। বিষয়টি স্থানীয় বনবিভাগ অবহিত হওয়ার পর এই অভিযান চালানো হয় বলে রেঞ্জ কর্মকর্তা সৈয়দ আশিক নিশ্চিত করেন।

স্থানীয় সাধারণ মানুষ এই অভিযানে সন্তোষ প্রকাশ করে বলেন, এই চক্রটি দীর্ঘদিন ধরে কোন অপশক্তির ছত্রছায়ায় পাহাড় কর্তন ও পরিবেশ বিধ্বংসী কাজ চালিয়ে তা খতিয়ে দেখে আইনী পদক্ষেপ গ্রহণের দাবী উঠেছে।

স্থানীয় ভিলেজার ও আওয়ামী লীগ নেতা গুরা মিয়া জানান, এসব অপরাধে জড়িতরা প্রভাবশালী হওয়ায় বিভিন্ন জনের সাথে আতাঁত করে পাথর আহরণ ও মাটি পাচার করে আসছে। আমরা প্রতিবাদ করলেও কেউ কানে নেয়না। তাই আজ বনের এই দৈন্য দশা।

এই ব্যাপারে বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মোঃ হুমায়ূন কবির জানান,বনজ সম্পদ ধ্বংসকারীদের সাথে কোন ধরনের আপোষ নেই। নিয়মিত অভিযানের অংশ হিসেবে চোরাই পাথর ভাঙ্গার মেশিন জব্দ করা হয়েছে। এই ব্যাপারে আইনী পদক্ষেপ গ্রহণের প্রস্তুতি চলছে।