টেকনাফ

টেকনাফে নৌকা ডুবিতে ৮ দিন ধরে যুবক নিখোঁজ  

শাহ্ মুহাম্মদ রুবেল : টেকনাফ বাহারছড়া উত্তর শিলখালী বঙ্গোপসাগরে মাছ শিকার শেষ কূলে ফেরার সময় প্রতিকূল ঢেউয়ের কবলে পড়ে নৌকা ডুবিতে মো. আলম (২৬) নামে যুবক নিখোঁজ হন। কিন্তু গত এক সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও এখনো তার লাশের কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত মঙ্গলবার ৬ আগস্ট স্থানীয় উত্তর শিলখালী নুরুল হুদার ছেলে মো. আলম সাগরে মাছ শিকার করার জন্য একই এলাকার খাইরুল আমিনের নৌকা করে বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরার জন্য যান। মাছ শিকার শেষে ওইদিন সকাল ১০ টার দিকে নৌকা কূলে ভেড়ার সময় প্রতিকূল ঢেউয়ের মাঝখানে পড়ে নৌকা। এ সময় মাঝি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেললে নৌকা সাগরের পানিতে ডুবে যায়। এ সময় নিখোঁজ হন অপেশাদার জেলে মো. আলম।

নিখোঁজের এক সাপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও তার লাশের কোনো সন্ধান পায়নি পরিবার। যদিও নৌকার মালিকসহ আত্মীয়-স্বজনরা উপকূলীয় বিভিন্ন সাগরের তীরে নিখোঁজ জেলের লাশ খোঁজ করেছিলেন।

উল্লেখ্য, সাগরে বৈরী আবহাওয়া আশঙ্কা থাকায় আবহাওয়া অফিস সতর্ক সংকেত জারি করলেও তা মানেননি নৌকার বহদ্দার (নৌকার মালিক)। এছাড়া নিখোঁজ জেলে কোনো পেশাদার মৎস্যজীবীও ছিলেন না।

এ ব্যাপারে নিখোঁজ জেলে মো. আলমের মায়ের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, দীর্ঘ এক সপ্তাহ ধরে ছেলে নিখোঁজ কোনো খবর পাওয়া যায়নি। তাদের পরিবারের একমাত্র উপার্জনকারী ছিলেন আলম। পরিবারে তিন ভাই ও এক বোনের মধ্যে সবার বড়। তাদের মাথা গোঁজার ঠিক মতো জায়গা নেই। এ অবস্থায় পরিবারের একমাত্র উপার্জনকারী সন্তানকে হারিয়ে পুরা পরিবার দিশেহারা হয়ে পড়েছেন। নিখোঁজ ছেলের সন্ধান পেতে কর্তৃপক্ষের সহায়তা কামনা করেন তিনি।

আলমের স্ত্রী মনোয়ারা বেগম বলেন, বিয়ের এক বছরের মাথায় বিধবা হয়ে একমাত্র ছেলের ভবিষ্যৎ নিয়ে দুঃচিন্তায় আছি।