টেকনাফ

বন্দুকযুদ্ধে রোহিঙ্গা ডাকাত আব্দুল করিম নিহত, ইয়াবা ও অস্ত্র উদ্ধার

ছবি: রাইজিং কক্স

পিকলু দত্ত, টেকনাফ : টেকনাফে র‌্যাবের সাথে বন্দুকযুদ্ধে লেদা রোহিঙ্গা ক্যাম্পের সাবেক মাঝি ও ডাকাত সদস্য আব্দুল করিম নিহত হয়েছে ঘটনাস্থল হতে ইয়াবা, অস্ত্র ও বুলেট উদ্ধার করা হয়েছে।

১৯ ডিসেম্বর (বৃহস্পতিবার) ভোররাতে র‌্যাব-১৫, (সিপিসি-১) টেকনাফ ক্যাম্পের একটি চৌকষ আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দমদমিয়া ট্যুরিজম সংলগ্ন এলাকায় অভিযানে গেলে স্বশস্ত্র ডাকাত দল র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করলে র‌্যাবের সদস্য আব্দুল মান্নান, শহীদুল ইসলাম আহত হয়।

র‌্যাব সদস্যরা আত্নরক্ষার্থে পাল্টা গুলিবর্ষণ করার কিছুক্ষণ পর হামলাকারীরা পালিয়ে গেলে ঘটনাস্থল তল্লাশী করে ১০হাজার ইয়াবা, ১টি বন্দুক, ৩ রাউন্ড তাঁজা কার্তুজ, ২ রাউন্ড খালি খোসাসহ লেদা ২৪নং এলএমএস রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ডি-ব্লকের এফপিসি নং-২৬৩৩৩৭০- এর বাসিন্দা আব্দুস সালামের পুত্র আব্দুল করিম (৩৮) কে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য টেকনাফ উপজেলা সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে আহত র‌্যাব সদস্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে গুলিবিদ্ধ ডাকাত সদস্যকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার রেফার করা হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। সে একজন তালিকাভূক্ত ডাকাত সদস্য এবং তার বিরুদ্ধে হত্যা, খুন, ডাকাতি ও অপহরণসহ ৪টি মামলা রয়েছে।
নিহত আব্দুল করিম ঐ ব্লকের এক সময়ের মাঝি ছিল।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন