ঢাকাকে হারিয়ে ফাইনালে চট্টগ্রাম

ক্রীড়া ডেস্ক : বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে বেক্সিমকো ঢাকাকে ৭ উইকেটে হারিয়ে দ্বিতীয় দল হিসেবে ফাইনাল নিশ্চিত করেছে গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম। ১৮ ডিসেম্বরের ফাইনালে দলটির প্রতিপক্ষ জেমকন খুলনা।

আসর জুড়ে বেশিরভাগ অধিনায়কই টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তবে মঙ্গলবার (১৫ ডিসেম্বর) টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন ঢাকার অধিনায়ক মুশফিক। এদিন বদলে যায় ঢাকার ওপেনিং জুটি। সাব্বির রহমানের সাথে ব্যাটিং উদ্বোধনে নামেন মুক্তার আলী।

তবে দলের এই পরীক্ষানিরীক্ষা সুফল বয়ে আনেনি। সাব্বির ১১ বলে ১১ ও মুক্তার ৭ বলে ৭ রান করে সাজঘরে ফেরেন। নাঈম শেখ ১৭ বল মোকাবেলা করলেও ব্যাট হাতে সুবিধাও করতে পারেননি, রান করেন মাত্র ১২। ফের দায়িত্ব বর্তায় অধিনায়ক মুশফিক ও ইয়াসির আলির কাঁধে।

ইয়াসির বলের সাথে পাল্লা দিয়ে রান তোলার প্রচেষ্টা চালিয়ে গেলেও মুশফিক খেলছিলেন ধীরগতিতে। স্ট্রাইক রেট একশরও নিচে রেখে তাকে প্যাভিলিয়নের পথ ধরতে হয়। ৩১ বলে মাত্র ২৫ রান করে দুটি চার হাঁকানো মুশফিক। থিতু হতে পারেননি ইয়াসিরও। ২১ বলে ২৪ রান করে ধরেন মুশফিকের পথ। আল-আমিন জুনিয়র ১৮ বলে ২৫ রান করে সাজঘরে ফিরলে ব্যাকফুটে চলে যায় ঢাকা। শেষপর্যন্ত নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে সবগুলো উইকেট হারিয়ে ঢাকা সংগ্রহ দাঁড়ায় ১১৬ রান। চট্টগ্রামের পক্ষে মুস্তাফিজুর রহমান তিনটি এবং শরিফুল ইসলাম দুটি উইকেট শিকার করেন।

জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ছন্দে থাকা দুই ওপেনার লিটন দাস ও সৌম্য সরকারের ব্যাটে উড়ন্ত সূচনা পায় চট্টগ্রাম। সৌম্য সরকারের মারকুটে ব্যাটিং দলের রানের গতিও রেখেছে চাঙা। তবে সৌম্যকেই প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে ধরতে হয় প্যাভিলিয়নের পথ। ৫টি চারে ২৩ বলে ২৭ রান করে তিনি আকবর আলীর রান আউটের শিকার হন।

এরপর মোহাম্মদ মিঠুন রানের চাকা সচল রাখার দায়িত্ব নেন, আর সাবধানী ব্যাটিং চালিয়ে যান লিটন। ৪৯ বলে ৪০ রান করে অবশ্য আল-আমিন জুনিয়রের শিকার হতে হয় লিটনকে। মিঠুনও ৩৫ বলে ৩৪ রান করে বিদায় নেন। তবে সেটি দুই ব্যাটসম্যানের বিদায় জয়ের পথে বাধা হতে পারেনি। ম্যাচ শেষ ওভারে গড়ায়, যে ওভারে প্রয়োজন ছিল মাত্র ১ রান। শেষ ওভারের প্রথম বলেই ৭ উইকেটের জয় তুলে নেয় চট্টগ্রাম।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

টস : বেক্সিমকো ঢাকা

বেক্সিমকো ঢাকা : ১১৬/১০ (২০ ওভার)
মুশফিক ২৫, আল-আমিন ২৫, ইয়াসির ২৪, নাঈম ১২
মুস্তাফিজ ৩২/৩, শরিফুল ১৭/২, নাহিদুল ১৫/১

গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম : ১১৭/৩ (১৯.১ ওভার)
লিটন ৪০, মিঠুন ৩৪, সৌম্য ২৭, শামসুর ৯*
আম-আমিন ৩/১, মুক্তার ২৮/১

ফল : গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম ৭ উইকেটে জয়ী।

রাইজিংকক্স.কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।