দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে উখিয়ার ইউপি সদস্যসহ ১১ জনের সাজা

প্রতীকী ছবি

নিজস্ব সংবাদদাতা : কক্সবাজারের উখিয়ার এক ইউপি সদস্যসহ ১১ জনের ২ বৎসর করে সাজা দিয়েছে আদালত।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে কক্সবাজার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিজ্ঞ বিচারক দেলোয়ার হোসেন এ সাজা প্রদান করেন।

যার মামলা নং ৯/২০১৯। সাজাপ্রাপ্ত ১নং আসামী মনির পলাতক থাকায় ৯জনকে জেল হাজতে প্রেরণ করে এবং অপর একজনের সমন জারি করা হয়েছে।

মনিরুল আলম মনির উখিয়া উপজেলার জালিয়াপালং ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের সদস্য এবং দক্ষিণ পাইন্যাশিয়া গ্রামের মৃত এরশাদুর রহমানের ছেলে।

১১ জনকে সাজা দেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আসামীপক্ষের আইনজীবি এডভোকেট আব্দুল মান্নান। তিনি বলেন, আদালতের আদেশ আছে এবং মানুষের বাড়ি ঘর ভাংচুর করেছে মর্মে তাদের বিরুদ্ধে মামলার প্রেক্ষিতে এ সাজা হয়। তৎমধ্যে ৯জনকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়। একজন পলাতক রয়েছে এবং একজনের সমন ইস্যু করেছে।

ঘটনার বিষয়ে খুনিয়াপালং ইউনয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুল মাবুদ বলেন, ২০১৯ সালে রামু’র খুনিয়াপালং ইউনিয়নে একটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে জালিয়াপালংয়ের মনির মেম্বার ও দালাল রশিদসহ আরো ১১জনের সাজা হয়েছে এমনটি শুনেছি।

এছাড়াও মনির মেম্বার চট্টগ্রামের কোতোয়ালি থানার মামলা নম্বর ৬০ (৮) ১৩ ও জিআর ৫১০/১৩ ইয়াবা মামলার চার্জশিটভূক্ত ১নং আসামী হয়ে ৯ মাস জেল কাটেন এবং বর্তমানে বিচারাধীন আছে।

 

রাইজিংকক্স.কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।