উখিয়া

পালংখালীতে হচ্ছে ‘ইউএনও কলেজ’

নিজস্ব সংবাদদাতা : সবকিছু পর্যালোচনা করে উখিয়া উপজেলার পালংখালীতে কলেজ নির্মানের প্রাথমিক পদক্ষেপ শুরু করা হয়েছে।সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় কলেজের নামকরণ করা হচ্ছে ইউএনও কলেজ”।

যেহেতু সরকারী ব্যবস্থাপনায় কলেজটি প্রতিষ্টা করা হচ্ছে সেহেতু “ইউএনও কলেজ”নামকরণকেই প্রাধান্য দেওয়া হচ্ছে। তাছাড়া আগে থেকেই পালংখালীতে ইউনিভার্সেল কলেজ নিয়ে কাজ করা উখিয়া প্রেসক্লাবের সিনিয়র সাংবাদিক নুরুল আমিন সিদ্দিকীর সাথে সমন্বয় করে কাজ করা হচ্ছে।

উখিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিকারুজ্জামান চৌধুরী বলেছেন, পালংখালীতে,প্রাথমিক ভাবে” ইউএনও কলেজ” নামকরণ করেই কাজ শুরু করা হচ্ছে। কারন এখানে কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের সহযোগীতায় উখিয়া উপজেলা প্রশাসনের ব্যবস্থাপনার কলেজটি প্রতিষ্টা করা হচ্ছে। তাই ইউএনও কলেজ নামকরণইই যুক্তিযুক্ত মনে করছেন শিক্ষাবিদরা। তারা মনে করেন ইউএনও কলেজ নামকরণ করা হলে সরকারের একটি ছায়া সবসময় কলেজটির সাথে থাকবে,তাছাড়া যখন যে ইউএনও উখিয়ায় আসবে শুধুমাত্র নামটির কারনে কলেজটির প্রতি তার আলাদা দৃষ্টি থাকবে।

ইতিপূর্বে পালংখালীতে কলেজ প্রতিষ্টা নিয়ে এক সভা উপজেলা সন্মেলন কক্ষে উখিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মোঃ নিকারুজ্জামান চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্টিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উখিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ হামিদুল হক চৌধুরী,অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উখিয়া সহকারী কমিশনার (ভূমি) আমিমুল এহসান খান, পালংখালী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান গফুর উদ্দিন চৌধুরী, রত্নাপালং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান খাইরুল আলম চৌধুরী,মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার রায়হানুল ইসলাম মিয়া,একাডেমিক সুপার ভাইজার বদরুল আলম, অধ্যক্ষ মিলন বড়ুয়া, উখিয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি সরওয়ার আলম শাহীন,সাংবাদিক নুর মুহাম্মদ সিকদার,আওয়ামীগ নেতা এম এ মঞ্জুর, আলী আহামদ,পালংখালীর প্যানেল চেয়ারম্যান নুরুল আবছার,অধ্যক্ষ শাহাব উদ্দিন,উখিয়া কলেজের প্রভাষক অজিত দাশ প্রমুখ।