চকরিয়া

প্রাণ বাঁচাতে গাড়ি থেকে লাফ দিলেন কলেজছাত্রী

আহত অবস্থায় কলেজছাত্রী শামসুন্নাহার মুন্নি। ছবি : রাইজিং কক্স

চকরিয়া (কক্সবাজার) সংবাদদাতা : চকরিয়ায় গাড়ি থেকে লাফ দিয়ে অপহরণকারীদের হাত থেকে রক্ষা পেল শামসুন্নাহার মুন্নি নামে এক কলেজছাত্রী। মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটার দিকে উপজেলার চকরিয়া জিদ্দাবাজার স্টেশনের কাছে এ ঘটনা ঘটে।

শামসুন্নাহার মুন্নি চকরিয়া উপজেলার জিদ্দাবাজার এলাকা থেকে অপহরণের শিকার হন। সে চকরিয়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের মানবিক বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্রী।

জানা যায়, কলেজ ছাত্রী মুন্নি কলেজ শেষে বাড়ি ফেরার জন্য চকরিয়া পৌরসভার আনোয়ার শপিং কমপ্লেক্সের সামনে গাড়ির জন্য অপেক্ষা করছিলেন। পরে একটি অটোরিকশাতে উঠেন তিনি। মুন্নি অটোরিকশাতে উঠার সঙ্গে সঙ্গে অপহরণ দলের ৪ সদস্য ওই গাড়িতে উঠলে অটো চালক দ্রুতগতিতে গাড়ি চালিয়ে যায়। পথে গাড়িতে অপহরনকারীরা কলেজ ছাত্রীকে নানা কুরুচিপূর্ণ কথা বলে বিভিন্ন ভঙ্গিমায় ইভটিজিং করতে থাকে। এ সময় অপহরণকারী চক্রের সদস্যরা তাকে একটি কলা খেতে দেন। সে কলাটি খেতে অস্বীকৃতি জানায়। সিএনজি গাড়িটি জিদ্দাবাজার এলাকায় পৌঁছালে তারা কলেজ ছাত্রীর গন্তব্যে না গিয়ে উল্টো মহাসড়ক দিয়ে চট্টগ্রামের দিকে চলতে থাতে। এ সময় মুন্নি নিজেকে বাঁচানোর জন্য কৌশলে রাস্তায় লাফ দিয়ে রাস্তায় পড়ে যায়। এতে গুরুতর আহত হন তিনি।

পরে স্থানীয়রা আহত অবস্থায় মুন্নিকে উদ্ধার করে প্রথমে জমজম হাসপাতাল ও পরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। এ ঘটনার পর স্থানীয়রা অটোরিকশার চালক এবং গাড়িটি জব্দ করতে পারলেও অপহরণকারীরা কৌশলে পালিয়ে যায়।

চকরিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি) তদন্ত একেএম সফিকুল আলম চৌধুরী বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়েছে। মেয়েটি গুরুতর আঘাত পাওয়ায় বর্তমানে জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ ঘটনায় ওই কলেজছাত্রীর পক্ষ থেকে অভিযোগ দেওয়া হলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।