বন্দর নগরীশিক্ষাঙ্গন

প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটিতে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন

জিইসি মোড় প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির কেদ্রীয় শহীদ মিনারে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ ইউনিভার্সিটির পক্ষ থক উপাচার্য প্রফেসর ড. অনুপম সেনের নেতৃত্বে ভাষা-শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর উদ্দশ্যে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হচ্ছে। ছবি: পিইউ

রাইজিং কক্স ডেস্ক : প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. অনুপম সেন বলেন, ১৯৪৭ সালে পাকিস্তান রাষ্ট্রের অভ্যুদয়ের পরে বাংলা ভাষা ষড়যন্ত্র কবলিত হলে শুরু হয় ভাষা আন্দোলন। ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি এই আন্দোলন চুড়ান্ত পরিণতি লাভ করে। সেদিন মাতৃভাষার সম্মান রক্ষার্থে বাংলা মায়ের বীর সন্তানেরা বুকের তাজা রক্তে রঞ্জিত করেছিলেন ঢাকার রাজপথ এবং আত্মাহুতি দিয়েছিলেন। তাই এই দিনটি বাঙালির ইতিহাসে একটি অনন্য ও অসাধারণ দিন।

২১ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার নগরীর জিইসি মোড়স্থ প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির পক্ষ থেকে পুষ্পমাল্য অর্পণ করার প্রাক্কালে তিনি এসব কথা বলেন। উপাচার্য প্রফেসর ড. অনুপম সেন বাংলা ভাষা আন্দোলনে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সম্পৃক্ততার ইতিহাস বর্ণনা করে বলেন, ১৯৯৯ সালে ইউনেসকো একুশে ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ঘোষণা করেছে। এই দিনটিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ঘোষণার মাধ্যমে সারা বিশ্বের ভাষার অধিকারের দিবস হিসেবে স্বীকৃতি দেয়া হয়েছে। তারপর থেকে এইদিনে বাঙালির সঙ্গে সারা বিশ্বেই দিনটি উদযাপন করা হচ্ছে। একুশে ফেব্রুয়ারির শহীদদের অর্থাৎ সালাম, বরকত, রফিক, জব্বারদের স্মরণ করা হচ্ছে। এটা বাঙালির জন্য অসীম গৌরবের।
তিনি ‘১৯৭১ সালের স্বাধীনতা সংগ্রামের বীজ ভাষা আন্দোলনেই অঙ্কুরিত হয়েছিল’ উল্লেখ করে বলেন, বিশ্বের যা কিছু মহৎ, সবই আমরা গ্রহণ করব। আমরা প্রয়োজনের তাগিদে বিভিন্ন ভাষা আয়ত্ত করব। কিন্তু আমাদেরকে আমাদের মাতৃভাষার মাধ্যমে এগিয়ে যেতে হবে। যেমন, নিজেদের মাতৃভাষার মাধ্যমে এগিয়ে যাচ্ছে চীন, জাপান, কোরিয়া প্রভৃতি দেশ।

উপাচার্য প্রফেসর ড. অনুপম সেন শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য অর্পণ করার পরে ইউনিভার্সিটির কর্মকর্তা-কর্মচারি, গণিত বিভাগ, ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ, ইংরেজি বিভাগ, ব্যবসা-শিক্ষা অনুষদ, আইন বিভাগ, কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ, স্থাপত্য বিভাগ, অর্থনীতি বিভাগ, সোশ্যালজি এন্ড সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট বিভাগ, প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটি ডিবেটিং সোসাইটি, অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন অব ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার্স কর্তৃক পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন ট্রেজারার প্রফেসর একেএম তফজল হক, ব্যবসা-শিক্ষা অনুষদের প্রফেসর অমল ভূষণ নাগ, কলা ও সমাজবিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মোহীত উল আলম, প্রকৌশল অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. তৌফিক সাঈদ, ব্যবসা-শিক্ষা অনুষদের সহকারী ডিন মঈনুল হক, গণিত বিভাগের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ইফতেখার মনির, আইন বিভাগের চেয়ারম্যান তানজিনা আলম চৌধুরী, ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চেয়ারম্যান টুটন চন্দ্র মল্লিক, ইংরেজি বিভাগের চেয়ারম্যান সাদাত জামান খান প্রমুখ। এছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন উপাচার্যের উপদেষ্টা ও প্রধান প্রকৌশলী জনাব মো. আবু তাহের, রেজিস্ট্রার জনাব খুরশিদুর রহমান, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক জনাব শেখ মুহাম্মদ ইব্রাহিম এবং ডেপুটি লাইব্রেরিয়ান জনাব কাউসার আলম প্রমুখ। -সংবাদ বিজ্ঞপ্তি