বাংলাদেশের ছবিতে সানি লিওন, চটেছেন হিরো আলম

বিনোদন ডেস্ক, রাইজিং কক্স : বলিউডের আলোচিত তারকা সানি লিওনকে দেখা যাবে বাংলাদেশি ছবির আইটেম গানে। ছবির নাম ‘বিক্ষোভ’।

এই ছবিটি শাপলা মিডিয়া প্রযোজনা করতে যাচ্ছে। ছবিটি পরিচালনা করবেন নির্মাতা শামীম আহমেদ রনি। বর্তমানে সেলিম খান ও শামীম আহমেদ রনি দুজনেই মুম্বাইয়ে রয়েছেন। চুক্তি স্বাক্ষরের পর সোমবার (১৯ আগস্ট) রাত ১০টায় সেখান থেকে সানি লিওনের বক্তব্য সম্বলিত একটি ভিডিও বার্তা পাঠিয়েছেন সেলিম খান।
নির্মাতা রনি জানান, বিক্ষোভ-এর আইটেম গানে সানি লিওন থাকবেন এটি নিশ্চিত। কয়েক সেকেন্ডের ওই ভিডিও বার্তায় সানি জানিয়েছেন, সেলিম খানের প্রযোজিত বিক্ষোভ ছবিতে তিনি পারফর্ম করতে যাচ্ছেন।

তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় ইতোমধ্যে সানি লিওন বিরোধী একটি গোষ্ঠী প্রতিবাদে সরব হয়েছেন। ফেসবুকে সরব হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায় থেকে আলোচিত হওয়া হিরো আলমও। তিনি রীতিমতো ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

হিরো আলম বলছেন, ‘সানি লিওন বাংলাদেশে আসুক এটা আমি চাই না। পর্নহ তারকাকে ব্বাংলাদেশের অর্থ আমি খুঁজে পাই না। বাংলাদেশের ইন্ডাস্ট্রি ধ্বংস হয়েছিল অশালীনতার কারণে, সেই অশালীনতাই আবার নিয়ে আসতে চাইছে একটা শ্রেণী। ‘

হিরো আলম বলছেন, ‘বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে দেশের বাইরে থেকে কোনো শিল্পী আনার দরকার নেই। এখানে যারা মেধাবী রয়েছে তাদের নিয়েই কাজ করা যেতে পারে। সানি লিওনের মতো পর্ন তারকাদের দেশে আনলে ইন্ডাস্ট্রি ফের অন্ধকার দিকে যাবে। ‘

আশরাফুল আলম ওরফে হিরো আলমের এমন মন্তব্য পাওয়া যাচ্ছে ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফরম ও সোশ্যাল সাইটগুলো।

ঢাকার ছবিতে সানি লিওনের সম্পৃক্ততার বিষয়টি নিয়ে দেখা দিয়েছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া। ইতিবাচকের পাশাপাশি নেতিবাচক মন্তব্যও করেছেন কেউ। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক চলচ্চিত্র পরিচালক ও শিল্পী মন্তব্য করে বলেন, ‘সানি লিওন পর্নস্টার এটা কে না জানেন। চমক লাগাতে এটা একটা কৌশল। আমাদের দেশে এত অভিনেত্রী থাকতে সানি লিওনকে নিয়ে কাজ করাটা কতটা যুক্তিসঙ্গত তা বোধগম্য নয়। দেশের অনেক শিল্পী কাজ না পেয়ে বেকার সময় কাটাচ্ছেন। অথচ আমরা ভিন দেশের শিল্পীদের দিয়ে আমাদের ছবির কাজ করাচ্ছি। আমাদের পরনির্ভরশীল না হয়ে স্বনির্ভরশীল হওয়া উচিত। আমাদের দেশীয় চলচ্চিত্র টিকিয়ে রাখতে দেশের শিল্পী দিয়েই কাজ করানো উচিত। ‘

রাইজিংকক্স.কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।