ভারতকে ইতিহাসের সবচেয়ে বড় লজ্জায় ডোবাল অস্ট্রেলিয়া

ক্রীড়া ডেস্ক : অ্যাডিলেড টেস্টের তৃতীয় দিনের শুরুতে অস্ট্রেলিয়ার পেসারদের গতি আর সুইংয়ে ভেঙে পড়ল ভারতের ব্যাটিং লাইনআপ। বিরাট কোহলি-চেতশ্বর পূজারাদের অসহায় আত্মসমর্পণে ভারত পেল তাদের ক্রিকেট ইতিহাসের সবচেয়ে বড় লজ্জা। দ্বিতীয় ইনিংসে আগের দিনের ১ উইকেটে ৯ রান নিয়ে শনিবার তৃতীয় দিন শুরু করে ভারত। ১৫ রানে ফেরেন নাইটওয়াচম্যান জসপ্রিত বুমরাহ। ১৫ রানেই আরো তিন উইকেট হারায় ভারত। প্যাট কামিন্স ও জস হ্যাজেলউডের দুর্দান্ত বোলিংয়ের কোন জবাব ছিল না সফরকারীদের। শেষ ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ শামী আহত হয়ে ফিরলে ৩৬ রানে থামে ভারতের দ্বিতীয় ইনিংস। টেস্ট ক্রিকেটে এটাই ভারতের সর্বনিম্ন স্কোর।

১৪৩ বছরের টেস্ট ইতিহাসে যা পঞ্চম সর্বনিম্ন স্কোর (যৌথভাবে)। এর আগে ১৯৭৪ সালে লর্ডস টেস্টে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৪২ রানে অলআউট হয়েছিল ভারত। চার ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্ট জিততে অস্ট্রেলিয়ার প্রয়োজন ৯০ রান।

ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের কেউই ছুঁতে পারেননি দুই অঙ্ক। টেস্ট ইতিহাসে এমন লজ্জার রেকর্ড গড়া দ্বিতীয় দল ভারত। এর আগে প্রথমবার ১১ জন ব্যাটসম্যানের দুই অঙ্ক ছুঁতে না পারার লজ্জা দক্ষিণ আফ্রিকার। ১৯২৪ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে কোন প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান ছুঁতে পারেননি দুই অঙ্ক। রানের খাতা খুলতে পারেননি চেতশ্বর পূজারা, আজিঙ্কা রাহানে ও রবিচন্দন অশ্বিন। সর্বোচ্চ ৯ রান করেন মায়াঙ্ক আগারওয়াল। বিরাট কোহলি ৪ ও হনুমা বিহারি ফেরেন ৮ রান করে। জস হ্যাজেলউড ৮ রানে নেন ৫ উইকেট।টেস্ট ক্রিকেটে ২০০ উইকেটের দেখা পেয়েছেন ডানহাতি এই পেসার। বাকি ৪ উইকেট নেন প্যাট কামিন্স।

প্রথম ইনিংসে ২৪৪ রান করে ভারত। জবাবে ১৯১ রানে অলআউট হয় অস্ট্রেলিয়া। প্রথমবার দিন-রাতের টেস্টে মুখোমুখি ভারত-অস্ট্রেলিয়া। এর আগে অস্ট্রেলিয়া খেলেছে সাতটি দিন-রাতের টেস্ট। গোলাপি বলের ক্রিকেটে আগের সাত ম্যাচেই জিতেছে অস্ট্রেলিয়া। ভারতের একমাত্র গোলাপি বলের টেস্ট বাংলাদেশের বিপক্ষে। গত বছরের নভেম্বরে কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে হওয়া সেই টেস্টে জিতেছিল ভারত।

টেস্টে ভারতের সর্বনিম্ন ইনিংস:
৩৬/১০ – প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া (২০২০)
৪২/১০ – প্রতিপক্ষ ইংল্যান্ড (১৯৭৪)
৫৮/১০ – প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া (১৯৪৭)
৫৮/১০ – প্রতিপক্ষ ইংল্যান্ড (১৯৫২)
৬৬/১০ – প্রতিপক্ষ দক্ষিণ আফ্রিকা (১৯৯৬)

টেস্ট ইতিহাসের সর্বনিম্ন দলীয় সংগ্রহ:
নিউজিল্যান্ড ২৬/১০ – প্রতিপক্ষ ইংল্যান্ড (১৯৫৫)
দক্ষিণ আফ্রিকা ৩০/১০ – প্রতিপক্ষ ইংল্যান্ড (১৮৯৬)
দক্ষিণ আফ্রিকা ৩০/১০ – প্রতিপক্ষ ইংল্যান্ড (১৯২৪)
দক্ষিণ আফ্রিকা ৩৫/১০ – প্রতিপক্ষ ইংল্যান্ড (১৮৯৯)
দক্ষিণ আফ্রিকা ৩৬/১০ – প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া (১৯৩২)
অস্ট্রেলিয়া ৩৬/১০ – প্রতিপক্ষ ইংল্যান্ড (১৯০২)
ভারত ৩৬/১০ – প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া (২০২০)।

রাইজিংকক্স.কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।