যে কালে যে রুপেই আসোনা ফিরে

ওমানা পরভীন শিলা

যে কালে যে রুপেই আসোনা ফিরে
ছড়াইব মোর হৃদয়ও মুঞ্জুরি তব পদতলে।

বৈশাখে আসো যদি
বৈশাখী ঝড়ের বেগে,
উড়াইব ধুলি তব দখিনও দুয়ারে।
জৈষ্ঠ্যতে আসো যদি
আম্র মুকুল হয়ে,
ছড়াইব বিলাস তব আম্র কাননে।

আষাঢ়ে আসো যদি
বাদলও হয়ে,
মাতিয়া ছুটিয়া যাব
তব ব্যাকুল হৃদয়ও পানে।

শ্রাবণে আসো যদি
শ্রাবণী হব আমি শ্রাবণও ধারায়,
ভিজাইব নয়ন তব ঘনবর্ষায়।

ভাদ্রতে আসো যদি
আলোছায়া হয়ে,
লুকাইব খেলার ছলে তব বাহুডোরে।

আশ্বিনে আসো যদি
শিউলি বিছান পথে,
শিশিরে ধুয়াইব তব চরণও যুগল আপন হাতে।

কার্তীকে আসো যদি
হিমেল হাওয়ার বেশে,
সোনালী রোদ্দুর হব তব শীতল দেহে।

অগ্রহায়নে আসো যদি
কৃষকের ক্ষেতে
নবান্ন উৎসব হব ধানের শীষে,
ফুটাইব হাসি তব ওষ্ঠ যুগোলে।

পৌষে আসো যদি
পার্বণ হয়ে,
উৎসবে মাতিয়া রব তব গৃহকোণে।

মাঘেতে আসো যদি
শৈত্য প্রবাহে
উষ্ণতার চাদরে ভিষণ আদরে,
জড়াইয়া রহিব তব বক্ষ মাঝারে।

ফাল্গুনে আসো যদি
শিমুল,পলাশ-কৃষ্ণচূড়ার বনে,
রাঙাইব ভূবন তব রক্তিম পরশে।

চৈত্রতে আসো যদি
তপ্ত রোদের বেশে নিস্তব্ধ দুপুর বেলায়
চৈতালী হাওয়া হব, শীতল করিব তব দেহ,
নব পল্লবও শাখা তলে।

শেষ প্রহরে রাঙিয়ে আলো
সে দিন চৈত্র মাসে
আপন করিয়া লব তব ফাগুন বিদায় কালে
সকল ব্যথা ভুলে।

যে কালে যে রুপেই আসোনা ফিরে
মোর হৃদয় দুয়ার রহিবে খোলা
তব পথপানে।
আঁকিয়া দিও তব পদচিহ্ন
মোর হৃদয়ও মনি ডোর।

 

রাইজিংকক্স.কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।