সবার উপরে লিটন দাশ

ক্রীড়া ডেস্ক, রাইজিং কক্স : করোনার হানায় ২০২০ সালে আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ম্যাচ হয়েছে মাত্র ৪৪টি। এই ৪৪ ম্যাচের মধ্যে বাংলাদেশ খেলেছে ৩টি ওয়ানডে। আর তিন ম্যাচ খেলেই বিশ্বের সব ব্যাটসম্যানকে পেছনে ফেলেছেন বাংলাদেশের লিটন দাস। ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ইনিংসের মালিক এই বাংলাদেশি ব্যাটসম্যান। এ বছর লিটন দাস এক ইনিংসে করেছেন ১৭৬ রান। যা ব্যক্তিগত বর্ষসেরার তালিকায় সবার উপরে। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন আরেক বাংলাদেশি। বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায়ক তামিম ইকবাল।

এক ইনিংসে তার সংগ্রহ ১৫৮ রান। চমক দেখিয়েছেন আয়ারল্যান্ড দলের পল স্টারলিং। শক্তিশালী ইংল্যান্ডের বিপক্ষে এক ম্যাচে ১৪২ রান করে তৃতীয় স্থানটি নিজের করে নিয়েছেন এই আইরিশ ব্যাটসম্যান। ভারতের বিপক্ষে সদ্য অনুষ্ঠিত ওয়ানডে সিরিজের একটি ম্যাচে ১৩১ রানের ইনিংস খেলে চতুর্থ স্থানে উঠে এসেছেন অজি তারকা স্টিভেন স্মিথ। পঞ্চম স্থানটিতে আরও একটি চমক। বিশ্বের বাঘাবাঘা ব্যাটসম্যানদের পেছনে ফেলে ওমানের বিপক্ষে অপরাজিত ১২৯ রান খেলে তালিকার পঞ্চম স্থানে নাম লিখিয়েছেন নামিবিয়ার ক্রেইগ উইলিয়ামস। সমান রান করে উইলিয়ামসের পাশে নিজের নাম লিখিয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার জানেমান মালান। ২০২০ সালে লিটন-তামিম ছাড়া আর কোনো ব্যাটসম্যান দেড়শ’ রানও করতে পারেনি। চলতি বছরের মার্চে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলেছিল বাংলাদেশ। সেই সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে ২০ বাউন্ডারি ও তিনটি ছক্কার মারে ১৫৮ রানের ইনিংস খেলেন তামিম ইকবাল। যা ছিল ওই দিন পর্যন্ত বাংলাদেশের পক্ষে ওয়ানডেতে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত রানের রেকর্ড। এর পরের ম্যাচেই ১৭৬ রানের অসাধারণ এক ইনিংস খেলে তামিমের সেই রেকর্ড ভেঙে দেন লিটন দাস। ১৬টি চার ও ৮টি ছয়ের মার ছিল তার সেই ইনিংসে। সিরিজে লিটন-তামিম উভয়েই হাঁকান জোড়া সেঞ্চুরি। চলতি বছর সবচেয়ে বেশি ১৩টি ওয়ানডে খেলেছে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল। স্বাভাবিকভাবেই সর্বোচ্চ রানের তালিকায় তাদের জয়জয়কার। ১৩ ম্যাচের সবকয়টি খেলেছেন অজি অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ। তিনি দুই সেঞ্চুরি ও পাঁচ ফিফটির সুবাদে ৫৬ গড়ে করেছেন ৬৭৩ রান।

২০২০ সালে ওয়ানডেতে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ
নাম রান প্রতিপক্ষ ৪/৬
লিটন কুমার দাস (বাংলাদেশ) ১৭৬ জিম্বাবুয়ে ১৬/৮
তামিম ইকবাল (বাংলাদেশ) ১৫৮ জিম্বাবুয়ে ২০/৩
পল স্টারলিং (আয়ারল্যান্ড) ১৪২ ইংল্যান্ড ৯/ ৬
স্টিভেন স্মিথ (অস্ট্রেলিয়া) ১৩১ ভারত ১৪/১
ক্রেইগ উইলিয়ামস (নামিবিয়া) ১২৯ ওমান ১৩/৬
ইয়ানেমান মালান (দ. আফ্রিকা) ১২৯ অস্ট্রেলিয়া ৭/৪।

রাইজিংকক্স.কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।