প্রথম বিশ্বযুদ্ধে শহিদ হওয়া ভারতীয় সেনার নাম ফিরে এল ১০০ বছর পরে!

রাইজিং কক্স ডেস্ক: ব্রিটেনের ওয়ার আর্কাইভে জ্বলজ্বল করছে ভারতীয় সেনার নাম! প্রথম বিশ্বযুদ্ধে শহিদ হয়েছিলেন তিনি। এত বছর পরে আচমকা সামনে এল তাঁর নাম, তাও আবার এমন গৌরবের সঙ্গে! খবর পাওয়ার পরেই চমকে উঠেছেন সকলে। কৌতূহল জেগেছে, কে ছিলেন এই সেনা! কী হয়েছিল তাঁর সঙ্গে?
জানা গেছে বম্বের বাসিন্দা ছিলেন শ্রী কৃষ্ণ চন্দ্র ওয়েলিনকর। যতদূর খবর মেলে, অত বছর আগে খুব কষ্ট করে পাইলট হয়েছিলেন তিনি। চাকরি পেয়েছিলেন ব্রিটিশ সেনাবাহিনীতে। ১৯১৮ সালের জুন মাসে, প্রথম বিশ্বযুদ্ধ যখন শেষের দিকে, তখন তাঁকে শেষবার দেখা গিয়েছিল ওয়েস্টার্ন ফ্রন্টের ওপর দিয়ে আকাশে চক্কর কাটতে। তার পর থেকেই আর কোনও খোঁজ মেলেনি তাঁর।
এ বিষয়ে ব্রিটেনের ‘কমনওয়েলথ ওয়ার গ্রেভস কমিশন’ (সিডব্লিউজিসি)-র মুখ্য সংরক্ষক অ্যান্ড্রু ফিদারস্টন পরে বলেছিলেন, “প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সময়ে যাঁরা শহিদ হয়েছিলেন, তাঁদের পরিবারের মনে অনেক প্রশ্ন ছিল। তাঁরা অনেকেই চিঠি লিখেছিলেন আমাদের। স্বজনহারার বেদনা নিয়ে লেখা সে সব চিঠির উত্তর আমরা সবক্ষেত্রে দিতে পারিনি, কিন্তু আমাদের মনে হয়েছিল এগুলো সংরক্ষণ করা উচিত। কারণ ওই চিঠিগুলো এক একটা অনুপ্রেরণার গল্প। শহিদ সৈন্যের পরিবারের প্রিয়জনেরা কীভাবে সান্ত্বনা পান, তা সাধারণ মানুষকে উদ্বুদ্ধ করার ক্ষমতা রাখে।”

সান্ত্বনা পেয়েছিলেন কেসি ওয়েলিনকরের পরিবারও। প্রায় ৩ বছর অপেক্ষার পরে তাঁর পরিবার জানতে পেরেছিল বিমান দুর্ঘটনায় মারা গেছেন তিনি। যখন খোঁজ পেলেন ঘরের মানুষের, তখন তিনি ফ্রান্সের হ্যানগার্জ কমিউনাল সেমেট্রির কবরে শায়িত চিরঘুমে। তার পরে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে হারিয়ে যান ওয়েলিনকর।
কিন্তু প্রায় ১০০ বছর পরে ফের জ্বলে উঠল তাঁর বীরত্বের স্মৃতি। সম্প্রতি সিডব্লিউজিসি প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সময়কার সেই চিঠিগুলিরর একটি ফাইল প্রকাশ্যে এনেছে। যুদ্ধে শহিদ হওয়া সেনার পরিবার ও কমিশনের মধ্যে চালাচালি করা হয়েছিল চিঠিগুলি। সেই ফাইলেই এখন জ্বলজ্বল করছেন ব্রিটিশ ভারতের প্রয়াত লেফটান্যান্ট কেসি ওয়েলিনকর। সিডব্লিউজিসি-র আর্কাইভেও রাখা হয়েছে সে চিঠি।

জানা যায়, প্রথম বিশ্বযুদ্ধে ব্রিটেনের হয়ে লড়াই করতে যোগ দিয়েছিলেন ১০ লক্ষেরও বেশি ভারতীয়। ৭৪ হাজার জন যোদ্ধা প্রাণ হারিয়েছেন ঘরে ফেরার আগেই। ফ্রান্স, বেলজিয়াম, জার্মানি– এসব দেশে আজও বহু ভারতীয় যোদ্ধার সমাধিচিহ্ন দেখা যায়।

রাইজিংকক্স.কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।