১৩০ রানের বড় জয় দিয়ে বিশ্বকাপ শুরু আফগানদের

ক্রীড়া ডেস্ক : বিশাল এক জয়ে দিয়ে আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সপ্তম আসর শুরু করল এশিয়ার দল আফগানিস্তান। সোমবার (২৫ অক্টোবর) দিনের একমাত্র ম্যাচে প্রতিপক্ষ স্কটল্যান্ডকে ১৩০ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়েছে মোহাম্মদ নবীর দল। নিজেদের ইতিহাসে রানের হিসেবে এটিই আফগানদের সবচেয়ে বড় জয়।

মুজিবের বোলিংয়ের সামনে দাঁড়াতেই পারেনি স্কটল্যান্ড।
শারজায় টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৯০ রান জড়ো করে আফগানরা। দলের পক্ষে অর্ধশতক হাঁকান নাজিবউল্লাহ জাদরান। ৩৪ বলের মোকাবেলায় ৫টি চার ও ৩টি ছক্কায় ৫৯ রান করেন তিনি।

এছাড়া অন্যান্যদের মধ্যে হজরতউল্লাহ জাজাই ৩০ বলে ৪৪, রহমানউল্লাহ গুরবাজ ৩৭ বলে ৪৬ ও মোহাম্মদ শাহজাদ ১৫ বলে ২২ রান করেন। অধিনায়ক নবী ৪ বলে ১১ রান করে অপরাজিত থাকেন। স্কটিশদের পক্ষে সাফইয়ান শরীফ শিকার করেন জোড়া উইকেট।

জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে সুইপ শটে পারদর্শিতা দেখিয়ে ঝড়ো শুরু এনে দেন জর্জ মানসি। তবে স্কটিশদের এই দাপট বেশিক্ষণ চলতে দেননি মুজিব উর রহমান। দ্বিতীয় ওভারে বল হাতে নেওয়া মুজিব একে একে শিকার করেন পাঁচটি উইকেট, মাত্র ২০ রানের খরচায়।

বিশ্বকাপে নিজেদের অভিষেক ম্যাচে মুজিব গড়েন বিশ্বকাপ অভিষেকে সেরা বোলিংয়ের রেকর্ড, যা তার ক্যারিয়ারেরও সেরা ফিগার। মুজিবের অগ্নিঝরা বোলিংয়ের দিনে স্কটল্যান্ডের ইনিংস থামে মাত্র ৬০ রানে, ১০.২ ওভারে। দলের পক্ষে মানসি করেন সর্বোচ্চ ২৫ রান। ইতিহাসে প্রথমবারের মত তৃতীয়, চতুর্থ, পঞ্চম ও ষষ্ঠ ব্যাটসম্যান সাজঘরে ফেরেন কোনো রান না করে।

মুজিবের তাণ্ডবের পর বিধ্বংসী রূপ নেন রশিদ খানও। মাত্র ৯ রানের খরচায় তিনি শিকার করেন চারটি উইকেট।

স্কটল্যান্ডের ৬০ রানের ইনিংসটি তাদের ইতিহাসের সর্বনিম্ন স্কোর, যা এবারের বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সর্বনিম্ন। এর আগে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৫৫ রানে অলআউট হয়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

টস : আফগানিস্তান

আফগানিস্তান ১৯০/৪ (২০ ওভার)
নাজিবউল্লাহ ৫৯, রহমানউল্লাহ ৪৬, জাজাই ৪৪
শরীফ ৩৩/২, ওয়াট ২৩/১

স্কটল্যান্ড : ৬০/১০ (১০.২ ওভার)
মানসি ২৫, গ্রিভস ১২
মুজিব ২০/৫, রশিদ ৯/৪, নাভিন ১২/১

ফল : আফগানিস্তান ১৩০ রানে জয়ী।

রাইজিংকক্স.কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।