লিটনের প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরি

ক্রীড়া ডেস্ক : টেস্ট ক্রিকেটে দীর্ঘ ছয় বছরের ক্যারিয়ারে সেঞ্চুরির আক্ষেপ ছিল লিটন দাসের। ক্যারিয়ারে দুবার ৯৪ ও ৯৫ রানে আউট হয়েছেন তিনি। আজ পাকিস্তানের বিপক্ষে যখন সেই ৯৫ রান পাড় করে ৯৬ রানে পৌছালেন তারপর বাকি ৪ রান করলেন দেখে শুনে। এর আগে ৯৪ আর ৯৫ রানে ছয় মারতে গিয়েই আউট হয়েছিলেন। এবার আর তা হলে দিলেন না। এক রান এক রান করে নিয়ে সেঞ্চুরি পূর্ণ করলেন ঠিক ১৯৯ বলে।

শততম রানটা নিতে গিয়ে অবশ্য রান আউট হতে পারতেন কিন্তু শেষ মুহুর্তে সুরক্ষা রেখা পার হয়ে যাওয়ায় বেচে যান এ যাত্রায়। লিটনের নামের পাশে লেখা হয় কাঙ্খিত এক সেঞ্চুরি। ৭৭ রানে অপরাজিত আছেন মুশফিক। আর ৪ উইকেটে বাংলাদেশের রান ২৩৫।

নিজেকে ফিরে পেতে কতটা মরিয়া লিটন, তা বোঝা গেল চা বিরতিতে। লিটনের সঙ্গে শত রানের জুটি গড়ে দ্বিতীয় সেশনের শেষে চা পানের বিরতিতে ড্রেসিংরুমে বিশ্রাম নিচ্ছেন মুশফিক। লিটনকে যেন ক্রিকেটারদের বিশ্রাম কক্ষ টানছেই না। তিনি উইকেটে থাকতে চান, ব্যাটিং করতে চান, রান করতে চান, শত শত সমালোচনার জবাব মুখ না খুলেই বলতে চান।

লিটন ড্রেসিংরুমে ফেরেননি, হয়ত ফিরতে চেয়েছেন নিজেকে অন্য উচ্চতায় নিয়ে গিয়ে। তাই তো বাংলাদেশের ড্রেসিংরুম লাগেয়া নেটে ব্যাটিং কোচের আর্মার বিপক্ষে ব্যাট করেছেন চা পানের বিরতি শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত। ৬২ রান নিয়ে বিরতি শেষ করে এসে যেন নান্দনিকতার পসরা সাজিয়ে বসেছেন।

ততক্ষণে তার নামের পাশে ক্যারিয়ারে প্রথম সেঞ্চুরি। দীর্ঘ ২৫ ম্যাচের ৪২ ইনিংস পর তিন অঙ্ক ছোঁয়ার আনন্দ। তাও এমন ম্যাচে যে ম্যাচে শঙ্কা জেগেছিল আর একটা ব্যাটিং বিপর্যয়ের। লিটন শুধু নিজেই সেঞ্চুরি করেননি। মুশফিককে নিয়ে গড়েছেন পঞ্চম উইকেট জুটিতে রেকর্ড রান।

১৮৬ রানে এখনো অবিচ্ছিন্ন তাদের অসাধারণ সেই জুটি। লিটন অপরাজিত রানে। টেস্ট ক্রিকেটে বিগত দুই বছরে উইকেটকিপার ব্যাটারদের মধ্যে লিটন আছেন সেরা ফর্মে। শেষ ১০ ইনিংসে ৫টি হাফ সেঞ্চুরি। এতদিন সর্বোচ্চ রানের ইনিংসটি ছিল ৯৫ রানের জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে।

রাইজিংকক্স.কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।