২০২৪ সালের নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বাংলাদেশে

ক্রীড়া ডেস্ক : ২০২৪ নারী টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপের আয়োজক হয়েছে বাংলাদেশ। দ্বিতীয়বারের মতো মেয়েদের ক্রিকেটের এতো বড় ইভেন্ট আয়োজনের দায়িত্ব পড়েছে বাংলাদেশের কাঁধে। এর আগে ২০১৪ সালে ছেলেদের কুড়ি ওভারের বিশ্বকাপের পাশাপাশি নারীদের বিশ্বকাপও আয়োজনের সুযোগ পেয়েছিল বাংলাদেশ।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসির সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সেটি মঙ্গলবার (২৬ জুলাই) রাতে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানিয়েছে সংস্থাটি।

এবারও বিডিং প্রক্রিয়ার মাধ্যমে আয়োজক দেশ ও বোর্ড নির্বাচন করা হয়। আইসিসির বোর্ড সভায় ইংল্যান্ড, ভারত, বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কাকে আয়োজক হিসেবে চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ ২০২৪ সালে নারী টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজন করবে৷ এছাড়া জানানো হয়, ২০০৯ সালে প্রথমবার টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজন করা ইংল্যান্ড ২০২৬ সালে আবারও নারীদের টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজন করবে। ২০২৫ সালে ওয়ানডে বিশ্বকাপ আয়োজন করবে ভারত। ২০২৭ সালে আইসিসি নারীদের টি-টুয়েন্টি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি আয়োজনের দায়িত্ব পেয়েছে দ্বীপরাষ্ট্র শ্রীলঙ্কা।

বিশ্বকাপ আয়োজনের দায়িত্ব পেয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন।

তিনি বলেছেন, এটা বাংলাদেশের ক্রিকেটের জন্য দারুণ খবর। নারীদের ক্রিকেটের পরিসর যখন বৃদ্ধি পাচ্ছে তখন প্রধান টুর্নামেন্টগুলোর একটি আয়োজনের এই সুযোগ দেওয়ায় আমি বিসিবির পক্ষ থেকে আইসিসি বোর্ডকে ধন্যবাদ জানাতে চাই।

এছাড়াও এই বৈশ্বিক আসর বাংলাদেশের নারী ক্রিকেটকে এগিয়ে নিতে ও নারীদের ক্রিকেটে উদ্বুদ্ধ করতে ভূমিকা রাখবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

এ দিকে বিসিবির নারী ক্রিকেট বিভাগের প্রধান শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল জানিয়েছেন, টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল ও ফাইনাল ম্যাচগুলো সিলেটে অনুষ্ঠিত হবে।

রাইজিংকক্স.কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।