কুঁড়েঘরে থাকা শ্রেষ্ঠ গোলরক্ষক রুপনা পাচ্ছেন পাকা বাড়ি

শ্রেষ্ঠ গোলরক্ষকের পুরষ্কার হাতে রুপনা চাকমা। ছবি: বাফুফে

ক্রীড়া প্রতিবেদক, রাইজিং কক্স : বাংলাদেশ নারী ফুটবল দল সাফ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার যে কয়েকজনের অবদান সবচেয়ে বেশি তার মধ্যে অন্যতম রুপনা চাকমা। পুরো টুর্নামেন্টে বাংলাদেশকে আগলে রেখে দলকে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে রাখেন তিনি। টুর্নামেন্টে বাংলাদেশ ২৫ গোল প্রতিপক্ষের জালে পাঠালেও মাত্র ১টি হোল হজম করেছে বাংলাদেশ। তার অসাধারণ নৈপুণ্যের জন্য তিনি হয়েছেন সাফের শ্রেষ্ঠ গোল রক্ষক। দক্ষিণ এশিয়ার শ্রেষ্ঠ গোল রক্ষক রুপনা চাকমার কুঁড়েঘর ভেঙ্গে পাকা বাড়ি ও তার ঘরের পাশের বাঁশের ব্রীজ ভেঙে পাকা ব্রীজ করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন রাঙ্গামাটির জেলা প্রশাসক সেই সাথে তার পরিবারের হাতে দেড় লাখ টাকার চেকও তুলে দেওয়া হয়।

এই কুঁড়েঘর থেকে বেড়ে উঠে আজ দক্ষিণ এশিয়ার শ্রেষ্ঠ গোলরক্ষকের স্বীকৃতি পেয়েছেন রুপনা চাকমা, ঘরটি ভেঙে পাকা করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন রাঙ্গামাটির জেলা প্রশাসক।ছবি: সংগৃহীত

রুপমা বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে প্রকাশ করে কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক, সাংবাদিক ও শুভাকাঙ্ক্ষীদের প্রতি৷ রুপনা আরো জানান, জানিনা এইসব আমার পাওয়ার যোগ্য কিনা তবে আমি জীবন বাজি রেখে দেশের জন্য সুনাম বয়ে আনতে চাই। সাফ নারী চ্যাম্পিয়নশিপের বাংলাদেশকে আমরা রিপ্রেজেন্ট করতে পেরেছি এবং শ্রেষ্ট গোল রক্ষক হিসেবে আমি নির্বাচিত হয়েছি। শুধু এখানে নয় আমি আরও অনেক দূর এগিয়ে যেতে চাই এবং বাংলাদেশের নারী ফুটবলকে আরো বড় আকারে রিপ্রেজেন্ট করতে চাই।

রুপনা চাকমার বাড়ির পাশের বাঁশে ব্রীজটি পাকা ব্রীজ করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন রাঙ্গামাটির জেলা প্রশাসক। ছবি : সংগৃহীত

আশা করি আপনাদের এই রকম সাপোর্ট, অনুপ্রেরণা এবং আর্শিবাদ আমার মূল চালিকা শক্তি হিসেবে কাজ করবে- আরও দূরে এগিয়ে যাওয়ার জন্য সাহজ যোগাবে।”

এদিকে সামাজিক যোগাযোগ ফেসবুকে লাইভ করে ভাইরাল হওয়া ব্যারিস্টার সুমন আজ সকালে লাইভে এসে রুপনা চাকমার বাড়ি করার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।

রাইজিংকক্স.কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।