মর্যাদাপূর্ণ সম্মাননা অর্জন করলো আলী প্রয়াস সম্পাদিত তৃতীয় চোখ

রাইজিং কক্স :
“চিহ্নমেলা লিটলম্যাগ সম্মাননা ২০২২ পেলো চট্টগ্রাম থেকে প্রকাশিত দেশের অন্যতম সমকালীন ছোটকাগজ ‘তৃতীয় চোখ’। গত মঙ্গলবার (১৮অক্টোবর) চিহ্নমেলা মুক্তবাংলা উদ্যোক্তা ও ‘চিহ্ন’ সম্পাদক অধ্যাপক ড. শহীদ ইকবাল ও প্রধান অতিথি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. গোলাম সাব্বির সাত্তার তৃতীয় চোখের সম্পাদক আলী প্রয়াসের হাতে উক্ত সম্মাননা তুলে দেন। সাথে ছিলেন বিশিষ্ট লিটলম্যাগ ব্যাক্তিত্ব সন্দীপ দত্ত ও অনুবাদক আলম খোরশেদ।
ছোটকাগজ “চিহ্ন”র আয়োজনে পঞ্চমবারের মতো রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের কলাভবন প্রাঙ্গণের শহীদুল্লাহ চত্বরে বাংলা ভাষার লিটলম্যাগের সর্ববৃহৎ আসর শুরু হয়েছিল ১৭ ও ১৮ অক্টোবর।

চিহ্নমেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পশ্চিম বাংলার প্রখ্যাত লিটিলম্যাগ ব্যক্তিত্ব সন্দীপ দত্ত, প্রথিতযশা কবি নির্মলেন্দু গুণ।
‘চিহ্নমেলা মুক্তবাংলা’ নামে এই আসরে দেশি-বিদেশি প্রায় দুইশটি লিটিল ম্যাগাজিনসহ চার শতাধিক লেখক-পাঠক-সম্পাদক অংশ নেন। প্রতিবেশী দেশ ভারতের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে বাংলাভাষী প্রায় দেড় শতাধিক লেখক, সম্পাদক ও তাত্ত্বিক এতে অংশ নেন।

উক্ত মেলায় তিন ক্যাটাগরিতে সাহিত্যপুরস্কার, চিহ্ন সারস্বত সম্মাননা ও নির্বাচিত ছোটকাগজকে ‘চিহ্ন লিটলম্যাগ সম্মাননা’ প্রদান করা হয়েছে। এবারে চিহ্ন সাহিত্যপুরস্কার পেয়েছেন কথাসাহিত্যিক হামিদ কায়সার, প্রবীণ সাহিত্যিক ও শিক্ষাবিদ জুলফিকার মতিনকে চিহ্ন সারস্বত সম্মাননা প্রদান করা হয়। এবছর বাংলাদেশের ছোটকাগজ ‘তৃতীয় চোখ’ এবং ভারতের ‘নৌকো’ পেয়েছেন মর্যাদাপূর্ণ এই চিহ্ন লিটলম্যাগ সম্মাননা।

উল্লেখ্য,কবি, প্রাবন্ধিক, সম্পাদক, সংগঠক ও প্রকাশক আলী প্রয়াস বিগত প্রায় দুই যুগ আগে থেকে ছোটকাগজ ‘তৃতীয় চোখ’ প্রকাশ করে আসছেন। বর্তমান বাংলাদেশের সাহিত্য জগতের অসংখ্য ছোটকাগজের মধ্যে ‘তৃতীয় চোখ একটি স্বতন্ত্র বৈশিষ্ট্যপূর্ণ লিটল ম্যাগাজিন হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে। ২০০১ সালে যাত্রা শুরু করা ছোটকাগজ তৃতীয় চোখের ২০টি সংখ্যা প্রকাশিত হয়েছে। তৃতীয় চোখের উল্লেখযোগ্য কাজগুলো হলো কবি কথাসাহিত্যিক মহীবুল আজিজ, সাহিত্যিক সমাজবিজ্ঞানী অনুপম সেন,আদিববাসী কবি ও প্রাবন্ধিক হাফিজ রশিদ খান,কবি ও সাংবাদিক অরুণ দাশগুপ্ত সংখ্যা বিশেষ তাৎপর্য বহন করে। এছাড়া অভিবাসন সংখ্যা, বাংলা ভাষা, অনুবাদ সংখ্যাগুলো উল্লেখযোগ্য কাজ হিসেবে বিবেচিত। বইমেলা উপলক্ষে প্রায় প্রতিবছর প্রকাশিত তৃতীয় চোখের অনিয়মিত সংখ্যাগুলো বিষয় ও প্রকরণ গুণে অত্যধিক সমৃদ্ধ।
সম্মাননা প্রাপ্তিতে সম্পাদক আলী প্রয়াস অভিমত ব্যক্ত করে জানান, ‘এই নেট-কালচারের যুগে এসে একটা ছোটকাগজের ২২ বছর বেঁচে থাকাটা কঠিন। তবুও তৃতীয় চোখের সূচনা, পথচলা, উত্তরণ, বিকাশ সব কিছুই ঘটে স্বনির্ভর শক্তিতে। ধৈর্য বিশ্বাস ধারাবাহিকতা এর সঞ্জীবনী মন্ত্র। আমাদেরও উথ্থান-পতন হয়েছে। নানান হোঁচট খেতে হয়েছে। কাজেই কেবল সংখ্যা বা আয়ু দিয়ে নয় একটি লিটল ম্যাগাজিনের মূল্যায়ন হয় তার বিষয়বস্তু ও কাজের বৈশিষ্ট্য দিয়ে। তৃতীয় চোখ এই দীর্ঘ পথচলায় লেখক, পাঠকের ভালোবাসাই আজকের এই সম্মাননা। মানুষের আন্তরিকতায় স্নাত হয়ে ‘তৃতীয় চোখ’নন্দনের জগতে জাগ্রত পথচলা অব্যাহত থাকবে সৃষ্টির সম্মুখে।’

রাইজিংকক্স.কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।